তিন মিনিটেই ঝড় তুললেন এই পর্নস্টার

তিনি প্রথম নন। তার আগে বলিউডে ছবি করেছেন বিখ্যাত পর্নস্টার সানি লিওন। কিন্তু তাও তার আগমন একটা আলাদা মাত্রা যোগ করছে বলিউডের ইতিহাসে। কারণ, পর্নস্টার মিয়া মালকোভার বলিউড ডেবিউ হচ্ছে বিখ্যাত বলিউড পরিচালক রাম গোপাল ভার্মার হাত ধরে। তার ছোট ছবি ‘গড সেক্স অ্যান্ড ট্রুথ’-‌এ অভিনয় করছেন মিয়া।

কয়েকদিন আগে সেই ছবির পোস্টার রিলিজের সময়েই বলিউড জুড়ে শুরু হয়েছিল গুঞ্জন। সেই গুঞ্জনে কোনও কোনও বলিউড স্টার যোগ দিতেও ছাড়েননি।

কেন পর্নস্টারকে ছবিতে নিচ্ছেন রাম গোপাল, সেই নিয়েও কথা শুরু করেছিলেন কেউ কেউ। তবে বিতর্কে পরিচিত মুখ রাম গোপালের কিন্তু এসবে বিশেষ কিছু আসে যায়নি। বরং কিছুটা আত্মবিশ্বাসের সাথেই সম্পূর্ণ নগ্ন মিয়ার সাথে ছবি দিয়ে বানানো পোস্টার শেয়ার করেছেন।

রাম গোপাল তিনি জানিয়েছিলেন, ১৫ জানুয়ারি মুক্তি পাবে ছবির ট্রেলার। সেই কথা মতোই ১৫ তারিখ মুক্তি পেল ছবির তিন মিনিটের ট্রেলার। সেখানে সিগমুন্ড ফ্রয়েড থেকে শুরু করে দেহ চর্চার নানা কেতাবি আঙ্গিক ছুঁয়ে যাওয়ার ইঙ্গিত দিলেন রামগোপাল ভার্মা। মিয়াকে প্রায় পুরো ট্রেলারেই দেখা গেল সম্পূর্ণ নগ্নভাবে।

‘ভেলকি’ নাটকে সজলের পাগল সাজ (ছবি)

জুমবাংলা বিনোদন ডেস্ক: শরিফুল ইসলাম শামীমের পরিচালিত ‘ভেলিক’ নামক একটি নাটকে পাগলের অভিনয় করেছেন জনপ্রিয় অভিনেতা আব্দুন নূর সজল। ভক্তরা এর আগে জানতেন সজল রোমান্টিক নায়ক। তাদের  এই ধারণা পাল্টে দেওয়ার জন্য সজল এখন বিভিন্ন চরিত্র অভিনয় করছেন বলে জানা যায়। ‘ভেলকি’ নাটকে সজলের বিপরীতে অভিনয় করেছেন মৌসুমী হামিদ।

রাজধানীর কাছাকাছি শেওড়ায় গত মঙ্গলবার থেকে এই নাটকের শুটিং শুরু হয়েছে। হঠাৎ বস্তিতে সজলের এই পাগলের লুকটি ইতোমধ্যে দর্শকদের আবেগকে নাড়া দিয়েছে। যাইহোক, আজ ‍জুমবাংলার পাঠকদের জন্য রয়েছে সজলের ‘ভেলকি’ নাটকের কিছু ছবি নিয়ে ছোট্ট একটি আয়োজন। আসুন এক নজরে দেখে নেই ছবিগুলো।

বস্তিতে শীত নিবারণের জন্য সজলের এই সাজটি নিয়ে ইতোমধ্যে মিডিয়া ঝড় উঠেছ।

এভাবে গভীরভাবে কী ভাবছেন সজল?

সজলের  ভাত খাওয়ার এই দৃশ্যটি দেখলে যে কেউ আবেগাপ্লুত হতে বাধ্য হবে।

এভাবে কার দিকে তাকিয়ে আছে সজল?

ছবি: সজল নূরের ফেসবুক পেইজ থেকে নেওয়া।

‘ভেলকি’ নাটকে পাগলের সাজে সজল, দেখুন এক্সক্লুসিভ কিছু ছবি

জুমবাংলা বিনোদন ডেস্ক: শরিফুল ইসলাম শামীমের পরিচালিত ‘ভেলিক’ নামক একটি নাটকে পাগলের অভিনয় করেছেন জনপ্রিয় অভিনেতা আব্দুন নূর সজল। ভক্তরা এর আগে জানতেন সজল রোমান্টিক নায়ক। তাদের  এই ধারণা পাল্টে দেওয়ার জন্য সজল এখন বিভিন্ন চরিত্র অভিনয় করছেন বলে জানা যায়। ‘ভেলকি’ নাটকে সজলের বিপরীতে অভিনয় করেছেন মৌসুমী হামিদ।

রাজধানীর কাছাকাছি শেওড়ায় গত মঙ্গলবার থেকে এই নাটকের শুটিং শুরু হয়েছে। হঠাৎ বস্তিতে সজলের এই পাগলের লুকটি ইতোমধ্যে দর্শকদের আবেগকে নাড়া দিয়েছে। যাইহোক, আজ ‍জুমবাংলার পাঠকদের জন্য রয়েছে সজলের ‘ভেলকি’ নাটকের কিছু ছবি নিয়ে ছোট্ট একটি আয়োজন। আসুন এক নজরে দেখে নেই ছবিগুলো।

বস্তিতে শীত নিবারণের জন্য সজলের এই সাজটি নিয়ে ইতোমধ্যে মিডিয়া ঝড় উঠেছ।এভাবে গভীরভাবে কী ভাবছেন সজল?

সজলের  ভাত খাওয়ার এই দৃশ্যটি দেখলে যে কেউ আবেগাপ্লুত হতে বাধ্য হবে।

এভাবে কার দিকে তাকিয়ে আছে সজল?

একই পার্টিতে স্ত্রী ও প্রেমিকা নিয়ে অভিষেক বিপাকে

মুম্বাইয়ে শাহরুখ খানের পার্টিতে স্ত্রী ঐশ্বরিয়াকে নিয়ে উপস্থিত ছিলেন অভিষেক বচ্চন। একই পার্টিতে হাজির ছিলেন অভিষেকের সাবেক প্রেমিকা কারিশমা কাপুর। এতে বেশ বিপাকে পড়েন অভিষেক বচ্চন।

পুরো পার্টিতে স্ত্রীকেই সময় দিয়েছেন অভিষেক। সাবেক প্রেমিকার সামনে পড়তে চাননি বলে পার্টি শেষ হবার আগেই সেখান থেকে বেরিয়ে গেছেন।

ঘটনার সূত্রপাত গত রোববার রাতে মুম্বাইয়ে শাহরুখ খানের দেয়া একটি পার্টিতে। ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির প্রথম সারির প্রায় সব তারকা সেখানে উপস্থিত ছিলেন।

অভিষেক-ঐশ্বরিয়া যেমন গিয়েছিলেন, তেমনই নিমন্ত্রণ রক্ষা করতে গিয়েছিলেন কারিশমা কাপুর। অনুষ্ঠানে থেকেও দেখা হয়নি অভিষেক-কারিশমার। ঐশ্বরিয়া ও কারিশমা যেন মুখোমুখি না হন তার জন্য ব্যস্ত ছিলেন অভিষেক।

অমর উজালার খবর অনুযায়ী, পার্টিতে পুরো সময় ঐশ্বরিয়ার সঙ্গে কাটিয়েছেন অভিষেক। কারিশমা অনেক রাত অবধি বন্ধুদের সঙ্গে পার্টিতে অংশ নিয়েছেন। আর তার মুখোমুখি হতে চাননি বলেই পার্টি থেকে অনেক আগে বেরিয়ে গিয়েছিলেন অভিষেক-অ্যাশ।

এদিকে নতুন সিনেমার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছেন ঐশ্বরিয়া। তাকে এবার দেখা যাবে, গায়িকা রূপে। অতুল মাঞ্জেকরের নতুন সিনেমা ‘ফ্যানি খান’-এ ঐশ্বরিয়াকে দেখা যাবে বরেণ্য সঙ্গীতশিল্পী লতা মঙ্গেশকরের ভক্ত হিসেবে।

তবে বিষয়টি নিয়ে কোনো মন্তব্য করেননি ঐশ্বরিয়া। জানা গেছে, প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানের নিষেধাজ্ঞার কারণেই মুখে কুলুপ এঁটেছেন সাবেক বিশ্ব সুন্দরি।

এখনও হৃত্বিককে ভালোবাসেন বলিউড কুইন কঙ্গনা

হৃত্বিক রোশনের সঙ্গে সম্পর্কের টানাপোড়েন যেন কিছুতেই শেষ হচ্ছে না। বহু চেষ্টা করেও হৃত্বিকের সঙ্গে কঙ্গনার সম্পর্কের শেষ সুতোটুকু কাটছে না। এসবের মধ্যেই এবার ফের হৃত্বিককে নিয়ে মুখ খুললেন কঙ্গনা।

তবে এবার কোনওভাবেই আলটপকা মন্তব্য বা আইনি নোটিস বা নগ্ন ছবি প্রকাশের অভিযোগ নয়, এবার যেন প্রেম নিয়ে বেশ কিছুটা আকুলই শোনা গেল কঙ্গনার গলা। আবেগে বন্ধ হয়ে আসে তাঁর গলা। তবে হৃত্বিকের নাম নিয়ে প্রকাশ্যে কোন ও মন্তব্য করেননি বলিউড কুইন। তবে ভালোবাসার মোহ যে এখনও তাঁর চোখে আবেশ ছড়িয়ে রেখেছে, বলিউড ‘কুইন’-এর বক্তব্য থেকেই তা আবার স্পষ্ট।

সম্প্রতি করণ জহরের সঙ্গে একটি টেলিভিশন শো-এর মঞ্চে হাজির হন কঙ্গনা।

সেখানে তাঁর ‘লাভলাইফ’ নিয়ে জিজ্ঞাসা করা হলে, কঙ্গনা বলেন, ‘আমার ভালোবাসার গল্প তো সব সংবাদমাধ্যমের পাতায় ছাপা হয়েছে, ভালোবাসার মানুষের চোখে আমার ঈশ্বর দেখেছি, সেখানে কোনও আলোও যেমন ছিল না, তেমনি আধারও ছিল না, জানি না সেখানে কী দেখেছি আমি’।

পর্নস্টার মিয়ার সাথে কাজ করার দারুণ অভিজ্ঞতা শেয়ার করলেন পরিচালক!

মহেশ ভাটের হাত ধরে বলিউডে পা রেখেছিলেন সানি লিয়ন। আর এবার রামগোপাল বলিউডে আনতে চলেছেন পর্নস্টার মিয়া মালকোভাকে।

সম্প্রতি রামগোপাল, মিয়াকে সাথে করে শ্যুটিং করে ফেললেন নতুন ভিডিও ‘গড, সেক্স , ট্রুথ’! ছবির পোস্টার ট্যুইটারে শেয়ার করে রামগোপাল লিখলেন, মিয়ার সাথে কাজ করা দারুণ অভিজ্ঞতা। গোটা জীবনে ভুলে যাওয়ার মতো নয়।’

অন্যদিকে মিয়াও ধন্যবাদ জানালেন রামগোপালকে। সোশ্যাল নেটওয়ার্কে ছবি পোস্ট করে লিখলেন, ‘সানি লিয়নের পর এবার আমি আসছি বলিউডে। ধন্যবাদ রামগোপাল!’

এবার সেই ছবিরই ট্রেলার ট্যুইটারে পোস্ট করলেন রামগোপাল ভার্মা। মাত্র তিন মিনিটেই উষ্ণতা ভরে গেল গোটা ইন্টারনেট দুনিয়া।

ফের বিয়ের পিঁড়িতে হৃতিক রোশন!

২০১৪। বিবাহ বিচ্ছেদ হয়েছিল হৃতিক রোশন এবং সুজান খানের। সে সময় তাদের বাল্যপ্রেমের এমন সমাপ্তিতে বেশ অবাক হয়েছিল সিনে মহল।

কিন্তু ডিভোর্সের পরও তাদের বন্ধুত্ব বদলায়নি এতটুকু। দুই ছেলেকে নিয়ে হঠাৎ ডিনারের প্ল্যান, সিনেমা দেখা বা বিদেশ ভ্রমণ- সবই চলছিল নিয়ম মেনেই।

এই কয়েক বছরে হৃতিক যতবার বিপদে পড়েছেন, পাশে দাঁড়িয়েছেন সুজান। ছবি ফ্লপ হলে মরাল সাপোর্ট দিয়েছেন। কয়েক মাস আগেও কঙ্গনা রানাওয়াতের সাথে সম্পর্ক নিয়ে হেডলাইনে ছিলেন হৃতিক। বিতর্কের জল আদালত পর্যন্ত গড়িয়েছিল। সে সময়ও প্রকাশ্যে তিনি পাশে পেয়েছিলেন সুজানকে। দিন কয়েক আগে হৃতিকের জন্মদিনেও সোশ্যাল মিডিয়ায় বেশ ঘটা করে উইশ করেন সুজান।

ফলে ডিভোর্সের পরও হৃতিক-সুজানের সম্পর্ক নিয়ে গুঞ্জন শুরু হয়েছিল ইন্ডাস্ট্রিতে। ফের তারা বিয়ে করতে পারেন বলেও খবর শোনা যাচ্ছে।

ডেকান ক্রনিকালের খবর অনুযায়ী, এই প্রাক্তন দম্পতির এক বন্ধু সম্প্রতি সাংবাদিকদের বলেন, ওদের সম্পর্কের মধ্যে যে সব বিষয় নিয়ে সমস্যা ছিল সেগুল ওরা বুঝতে পেরেছে। ওদের একটু সময় দিন। আবার ওদের একসঙ্গে দেখতে পাবেন।\

সত্যিই হৃতিক-সুজান ফের বিয়ে করবেন কি না, তা নিয়ে এখনও পর্যন্ত কেউ মুখ খোলেননি। তবে তাদের বন্ধুত্ব দেখে এই সম্ভাবনার কথা উড়িয়েও দিচ্ছেন না বলি মহলের একটা বড় অংশ। আবার অনেকেই বলা শুরু করেছেন তারা নাকি খুব শিগগিরই বিয়ে পিঁড়িতে বসতে যাচ্ছেন।