কি আমার চেহারা, নাম হচ্ছে পেয়ারা

‘দুই দিনের বৈরাগী ভাতকে বলে ফ্রাইড রাইস’, ‘ভাল করে আয়নায় নিজেকে দেখেন’, ‘মানসিকতা এতো নিচু হয় ক্যামনে’- ফেসবুকে এ রকম নানা বাঁকা মন্তব্যে ক্ষত-বিক্ষত হচ্ছেন অভিনেত্রী আশনা হাবিব ভাবনা।

মূলত, তার একটি মন্তব্যকে ঘিরে এরকম কটু বাক্যে জর্জরিত হচ্ছে তার নাম। একটি শীর্ষ স্থানীয় অনলাইন পোর্টালকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে ভাবনা বলেন, ‘বাংলাদেশের কোন ব্রান্ড আমি কিনিও না, পরিও না। বাংলাদেশে কি কোন ব্রান্ড আছে নাকি।’ এই মন্তব্যের প্রকাশের পরপরই নড়েচড়ে উঠেছেন নেটিজেনরা।

অভিনেত্রী আশনা হাবিব ভাবনা
তাদের মতে গর্ব করার মতো অনেক ব্রান্ড রয়েছে বাংলাদেশের অথচ ভাবনার মতো একজন অভিনেত্রী দেশকে এভাবে হেয় করেন কিভাবে।

এছাড়া সাক্ষাৎকারে ভাবনা আরও বলেন- বাংলাদেশ নয়, দুবাই এবং সিঙ্গাপুর থেকেই তিনি শপিং করেন। ইতিমধ্যে তার এ বক্তব্য ফেসবুকে ভাইরাল হয়ে ছড়িয়ে পড়েছে। এমনকি ওই পোর্টালের প্রকাশিত নিউজের কমেন্ট বক্সেও নানারকম মন্তব্যে জর্জরিত হচ্ছেন ভাবনা।

আরশাদ সোহেল নামে একজন লিখেছেন- ‘দেশকে এতো হেয় করে সেই দেশে থাকাই উচিৎ না’

ফারজানা সুলতানা নামে একজন ফেসবুকে মন্তব্য করেছেন, কি আমার চেহারা,নাম হচ্ছে পেয়ারা। বিদেশি ব্রান্ডের নাম বললেই ফেমাস হওয়া যায়না। ফুটানি যত্তসব। বিদেশ চলে গেলেই পারে। এখানের কিছুই যখন পছন্দ না।’

আশনা হাবিব ভাবনা
প্রিন্স সুজন নামে একজন মন্তব্য করেছেন- ‘এই মাকাল ফল কই থাইকা আসছে? বাংলাদেশে কোন ব্র্যান্ড নাই ! এই মেয়েকে পাবনার মেন্টাল হাসপাতালে পাঠায় না কেন ?’ এরকম তির্যক মন্তব্য বেগবান হচ্ছে সময়ের সাথে।

তরুণ অভিনেত্রী আশনা হাবিব ভাবনা। ‘ভয়ংকর সুন্দর’ চলচ্চিত্রে অভিনয় করেই চলে এসেছেন সিনেমা প্রেমী দর্শকের পছন্দের অভিনেত্রীদের শীর্ষ তালিকায়। শুধু সিনেমাই নয়, ছোটপর্দায় তার অভিনয়দক্ষতাও প্রশংসনীয়। অভিনয়ের বাইরেও দীর্ঘদিন ক্লাসিকাল নাচ শিখেছেন।