ক্ষমা চাইলেন সাবেক বিশ্বসুন্দরী প্রিয়াঙ্কা!

প্রিয়াঙ্কা চোপড়া প্রযোজিত সিকিমিজ চলচ্চিত্র ‘পাহুনা: দ্য লিটল ভিজিটরস’ সম্প্রতি টরন্টো চলচ্চিত্র উৎসবে প্রদর্শিত হয়েছে। আর এখানেই বেঁধেছে বিপত্তি! এক সাক্ষাৎকারে এটিকে প্রথম সিকিমিজ সিনেমা বলে মন্তব্য করে তোপের মুখে পড়েছেন এই সাবেক বিশ্বসুন্দরী।

দীর্ঘদিন ধরেই বলিউড সিনেমায় অনুপস্থিত প্রিয়াঙ্কা। সর্বশেষ হলিউড সিনেমা ‘বেওয়াচ’-এ গুরুত্বপূর্ণ একটি চরিত্রে দেখা গেছে তাকে। সামনে মুক্তি পাবে তার আরও দুই হলিউড সিনেমা। বলিউডের রূপালি পর্দায় দেখা না গেলেও গত কয়েকবছর ধরে প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান পার্পেল পেবল ফিল্মস-এর ব্যানারে আঞ্চলিক ভাষার সিনেমা প্রযোজনা করে আসছেন এ অভিনেত্রী।

প্রিয়াঙ্কা বলেন, ‘পাহুনা: দ্য লিটল ভিজিটরস একটি সিকিমিজ সিনেমা। সিকিম হচ্ছে উত্তর ভারতের একটি রাজ্য। এখানে কোনো ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রি নেই। কারণ প্রায় সবসময়ই এখানে বিদ্রোহী কর্মকাণ্ড চলতে থাকে। পাহুনা: দ্য লিটল ভিজিটরস প্রথম সিকিমিজ সিনেমা।’

প্রিয়াঙ্কার এ সাক্ষাৎকার প্রকাশের পরপরই শুরু হয়েছে সমালোচনার ঝড়। প্রিয়াঙ্কার এ বক্তব্যকে কাণ্ডজ্ঞানহীন ও রাজনৈতিক জ্ঞানের অভাব হিসেবে অভিহিত করে সিকিমের রাজধানী গ্যাংটকের এক বাসিন্দা টুইট করেছেন, ‘ডিয়ার প্রিয়াঙ্কা, সিকিম খুবই শান্তিপূর্ণ একটি রাজ্য। এখানে কখনোই বিদ্রোহী কর্মকাণ্ড ঘটেনি। এভাবে কাণ্ডজ্ঞানহীনের মতো মন্তব্য করা থেকে বিরত থাকুন।’ তবে এ বিষয়ে এরইমধ্যে ক্ষমা চেয়েছেন প্রিয়াঙ্কা চোপড়া।