বলিউডে চলছে ইতিহাস নির্ভর সিনেমার ঢল













সর্বশেষ ‘পদ্মবত’-এ ইতিহাস ও কল্পনার মিশেল দেখেছে বলিউড দর্শকরা। সেখানে বিশেষ ধরনের চরিত্রে ফুটিয়ে তোলা হয়েছে মহত্ত্ব, আবার অন্য চরিত্রে আরোপ করা হয়েছে কালিমা। স্পষ্ট হয়েছে শত্রু-মিত্র ভেদাভেদের রাজনীতি। সেই সিনেমা পেয়েছিল ব্যাপক সাফল্য।

কলকাতার সংবাদমাধ্যম আজকাল জানায়, বলিউডে ইতিহাস নির্ভর অনেক সিনেমায় রয়েছে

শুটিং ফ্লোরে বা মুক্তির মিছিলে। যার মধ্যে একই ঘটনাকে কেন্দ্র করে একাধিক সিনেমাও রয়েছে।

আশুতোষ গোয়ারিকর ২০০১ সালে নির্মাণ করেন ‘‌লগান’।‌ এরপর ‘‌যোধা আকবর’‌, ‘‌খেলেঁ হামজি জান সে’‌, ‘‌যোধা আকবর’‌, ‘মহেঞ্জোদারো’‌ নির্মাণ করেন। তবে আসল ইতিহাসের সম্পর্ক কতটা তা বিতর্কের বিষয়। এবার নির্মাণ করছেন ‘পানিপথ’। ছবিতে আহমদ শাহ আবদালির চরিত্রে অভিনয় করছেন সঞ্জয় দত্ত আর সদাশিব রাও ভাউ-‌এর ভূমিকায় থাকছেন অর্জুন কাপুর। আগের ছবি ‘‌মহেঞ্জোদারো’‌ সাফল্য না পেলেও এই নতুন ছবি নিয়ে আশুতোষ যথেষ্ট আশাবাদী।

রঙ্গনা রানাউত যে ঝাঁসির রানি লক্ষ্মীবাঈয়ের চরিত্রে অভিনয় করছেন এ কথা তো সবারই জানা। ছবির নাম ‘‌মণিকর্ণিকা :‌ দ্য কুইন অফ ঝাঁসি’‌। শিগগির মুক্তি পাবে এই ছবি। তবে এর মধ্যেই একই বিষয় নিয়ে তৈরি হয়ে গেছে ‘‌সোর্ডস অ্যান্ড স্কেপটর্স’‌। স্বাতি ভিশের পরিচালনায় এই ছবিতে লক্ষ্মীবাইয়ের ভূমিকায় আছেন দেবিকা ভিশে।

‌১৮৯৭ সালে ১০ হাজার আফগান সেনার বিরুদ্ধে লড়াই করেছিল ব্রিটিশ ভারতীয় বাহিনীর একটা ছোট্ট অংশ শিখ রেজিমেন্ট। ওই ঘটনা সারাগরহির যুদ্ধ নামে খ্যাত। এবার সেই যুদ্ধকেই ‘ব্যাটল অফ সারাগরহি’ সিনেমায় পর্দায় আনছেন রাজকুমার সন্তোষী। লড়াইয়ের নায়ক ঈশ্বর সিং-‌এর ভূমিকায় অভিনয় করছেন রণদীপ হুদা। একই যুদ্ধ নিয়েই আরো একটা ছবি মুক্তি পেতে চলেছে। করণ জোহর প্রযোজিত এই ছবির নাম ‘কেশরী’‌। মুখ্য চরিত্র ঈশ্বর সিং হয়েছেন অক্ষয় কুমার।

মারাঠা সেনানায়ক শিবাজির বন্ধু ও প্রধান সেনাপতি ছিলেন তানাজি মালুশোরে। যিনি ১৬৭০ সালে সিংহবাদের যুদ্ধে মোগল অধিকারে থাকা কোণ্ডনা দুর্গকে মারাঠাদের কব্জায় এনেছিলেন। মাত্র গুটিকতক সেনা নিয়ে তিনি পরাজিত করেছিলেন মোগল সেনাপতি জয় সিং-‌এর বিশাল বাহিনীকে। যুদ্ধে অবশ্য মৃত্যু হয় তানাজির। সেই কাহিনি নিয়ে তৈরি হচ্ছে ‘তানাজি :‌ দ্য আনসাঙ ওয়ারিয়র’। নাম ভূমিকায় অভিনয় করছেন অজয় দেবগণ।‌‌‌