রূপ যৌবন পুঁজি করে চলে এ রমরমা ব্যবসা : হ্যাপী

শোবিজ অঙ্গনের সমালোচিত নাম নাজনীন আক্তার হ্যাপী। গত দুই বছর বিভিন্ন কারণে সংবাদের শিরোনাম হয়েছেন এই অভিনেত্রী। কাজের মাধ্যমে যতটা আলোচনায় এসেছেন, তার চেয়ে বেশি সমালোচিত হয়েছেন ব্যক্তিজীবনের কারণে। জাতীয় দলের এক তারকা ক্রিকেটারের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্কে জড়িয়ে তিনি সমালোচিত হন। এরপর মিডিয়া থেকে নিজেকে গুটিয়ে নেন। লেখক হিসেবে তার আত্মপ্রকাশ ঘটে। ‘হ্যাপী থেকে আমানুতুল্লাহ’ তার প্রথম গ্রন্থ।

শোবিজ অঙ্গন থেকে সরে গেলেও এই অঙ্গন নিয়ে তিনি গতকাল ১৫ সেপ্টেম্বর তার ফেসবুক ওয়ালে একটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন। পাঠকদের জন্য তা হুবাহু তুলে ধরা হলো। সেখানে হ্যাপী লিখেছেন: ‘বেশিরভাগ নায়িকা, গায়িকাদের শেষ বয়সের পরিণতি ‘অর্থাভাবে চিকিৎসা হচ্ছে না’ টাইপ শিরোনামে নিউজ! এছাড়া নায়িকা-গায়িকারা অর্থের অভাব থাকুক বা না থাকুক তাদের জন্য পারিশ্রমিক হিসাবে জাহান্নাম তো থাকছেই (তওবা না করলে)!

এরা এতো বোকা কেন হয়! এরা কি বোঝে না তাদের রূপ যৌবনকে পুঁজি করে ব্যবসা চলে, রমরমা ব্যবসা! কাজ শেষ তো, থুথুর মত ফেলে দেয়! অথচ আজকের নায়িকা-গায়িকারা গর্ব করে দুনিয়া কাঁপাচ্ছে। কাল কি হবে, কোনো হুশ আছে?
সিনেমাপাড়ায়, মিডিয়াপাড়ায় ক্যামেরার সামনে-পেছনে কত রকম নোংরামি চলে তা তো সবার কম বেশি জানা। আজকের এই রূপ কয়দিন? এই রূপ দিয়ে কোটি কোটি পুরুষের রাতের ঘুম হারাম করাই শুধু সম্ভব, একজন জান্নাতি জন্ম দেওয়া সম্ভব নয়!

আমিও ছিলাম তোমাদের কাতারে! রূপ-যৌবন তোমাদের চেয়ে কম ছিল না। জান্নাত পাবো কিনা জানি না। তবে জাহান্নামের দিকে নিয়ে যাওয়ার এই জঘন্য অন্ধকার পথ থেকে আল্লাহ আমাকে ফিরিয়ে এনেছেন আলহামদুলিল্লাহ! এখন তাই আশা করার সাহস করি, হয়ত আল্লাহ জাহান্নাম থেকে হেফাযত করবেন!

যারা তোমরা মিডিয়া-ফিল্ম নিয়ে পড়ে আছো, তোমরা স্বীকার করো বা না করো, এটা যে কত নোংরা জগত তা তোমরা ভালো মতই জানো। এখনো সময় আছে, ফিরে আসো! অবশ্যই আল্লাহতায়ালা তোমাদের পুরস্কৃত করবেন ইনশাআল্লাহ!’

হ্যাপী অভিনীত সর্বশেষ ‘ধূমকেতু’ সিনেমাটি চলতি বছরের শুরুর দিকে প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পায়। শফিক হাসান পরিচালিত এ সিনেমায় হ্যাপী আইটেম গানে পারফর্ম করেছিল।