শাবনূরের সঙ্গে ডিভোর্সের প্রশ্নই ওঠে না বললেন অনিক মাহমুদ

ডিভোর্সের চিন্তা আমি বা শাবনূর কেউ কখনো করি না। উই আর হ্যাপি একচুয়ালি। আমরা খুব ভালো আছি। আমি নিজেও দুই বছর ধরেই শুনছি যে আমার আর শাবনূরের ডিভোর্স হচ্ছে। তবে এ ধরনের গুঞ্জন ভিত্তিহীন। শাবনূরের সঙ্গে ডিভোর্সের প্রশ্নই ওঠে না, বললেন জনপ্রিয় নায়িকা শাবনূরের স্বামী অনিক মাহমুদ।

ঢালিউড অন্দর মহলে বেশ কিছুদিন ধরেই এ দম্পতির বিচ্ছেদের গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে। ভালোবেসেই বিয়ে করেছিলেন শাবনূর-অনিক। তাদের ঘর আলো করে রয়েছে আইজান নামে এক পুত্র সন্তান।

শাবনূর ক্যারিয়ারের শীর্ষে অবস্থান করার সময় অনিকের সঙ্গে বিয়ে হয়। প্রেমের বিয়ের সেই প্রেমটা এত বছর পর কতোটা বিরাজমান। জবাবে অনিক বলেন, শাবনূর আমার সন্তানের মা। ওকে আমি অনেক ভালোবাসি। আগের চেয়ে প্রেমটা আরো বেড়েছে।

এতদিন ধরে সংসার করছেন দুজন। কিন্তু মিডিয়ার সামনে একসঙ্গে তদের খুব কমই দেখা গেছে।

এ ব্যাপারে তিনি বলেন, দেখুন আমাকে ব্যবসার কাজে প্রায়ই দেশের বাইরে থাকতে হয়। এ বছরের জানুয়ারি থেকে জুলাই মাস পর্যন্ত আমি দেশের বাইরে ছিলাম। অন্যদিকে শাবনূরকেও নিজের কাজ নিয়ে ব্যস্ত থাকতে হয়। মিডিয়ার সামনে আমরা একসঙ্গে না আসলেও ঘরোয়া বিভিন্ন অনুষ্ঠানে আমরা একসঙ্গেই যাই। এটা শাবনূর ও আমার বন্ধু-বান্ধবদের কাছে খোঁজ নিলেই জানতে পারবেন। তবে আমরা দুজন মান্না উৎসবে প্রথমবার কোনো মঞ্চে একসঙ্গে পারফরম করেছিলাম। আমরা যেন সারা জীবন একসঙ্গে থাকতে পারি এই দোয়াই করবেন সবাই।

উল্লেখ্য, ২০১১ সালের ৬ ডিসেম্বর ব্যবসায়ী অনিক মাহমুদের সঙ্গে শাবনূরের আংটি বদল হয়। এরপর ২০১২ সালের ২৮ ডিসেম্বর বিয়ে করেন তারা। ২০১৩ সালের ২৯ ডিসেম্বর আইজান নিহান নামে পুত্র সন্তানের মা হন শাবনূর।