‘আমাদের সমাজ ব্যবস্থার কারণে সিনেমায় নারীদের সমস্যা রয়েই গেছে’













ঢাকাই চলচ্চিত্রের এ প্রজন্মের চিত্রনায়িকা ইয়ামিন হক ববি। ‘খোঁজ-দ্য সার্চ’, ‘দেহরক্ষী’, ‘ফুল অ্যান্ড ফাইনাল’, ‘ইঞ্চি ইঞ্চি প্রেম’, ‘রাজত্ব’, ‘অ্যাকশন জেসমিন’, ‘স্বপ্নছোঁয়া’, ‘হিরো: দ্য সুপারস্টার’, ‘আই ডোন্ট কেয়ার’সহ বেশ কিছু সিনেমায় অভিনয় করেছেন তিনি।

এরই মধ্যে কয়েকটি নারী নির্ভর সিনেমাতেও অভিনয় করেছেন ববি। নারী নির্ভর সিনেমা

‘অ্যাকশন জেসমিন’ ইতোমধ্যে মুক্তি পেয়েছে এটি। এ ছাড়া ‘বিজলী’ সিনেমাটির শুটিং শেষ করে মুক্তি অপেক্ষায় রয়েছে।

আজ বৃস্পতিবার বিশ্ব নারী দিবস। এ উপলক্ষে কথা বলেন ইয়ামিন হক ববি। তিনি বলেন, ‘নারী জাগরণ বাস্তবায়ন করার দায়িত্ব প্রত্যেকটা নারীর নিজের। দিনে দিনে আমরা আরো বেশি আধুনিকতার দিকে যাচ্ছি কিন্তু তারপরও ঘরে ঘরে একটা বিষয় রয়েই যাচ্ছে যে, আমিতো মেয়ে, আমাকে এটা সহ্য করতে হবে, আমাকে এটা মেনে নিতে হবে। আবার কেউ কেউ এটা মানে না। বেগম রোকেয়া নারীদের বন্ধ চোখ খুলে দিয়েছিলেন। তারপরও বর্তমানে যতটা ঘাটতি রয়েছে সেটা আমাদের নিজেদের কারণে। আমরা বই-পুস্তক পড়ে জেনেছি, একটা সময় মেয়েদের অবস্থা অনেক খারাপ ছিল। তখন মেয়েদের বস্তু হিসেবে দেখা হতো। এখন অনেক পরিবর্তন হয়েছে।’

ঢাকাই চলচ্চিত্রে নারীদের অবস্থান সর্ম্পকে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশে হিরো কেন্দ্রীক সিনেমা বেশি নির্মিত হয়। যদিও আমি কয়েকটি নায়িকা কেন্দ্রীক সিনেমায় কাজ করেছি। তবে আমাদের সমাজ ব্যবস্থার কারণে সিনেমায় নারীদের সমস্যা রয়েই গেছে। এখনো অনেক প্রতিকূল পরিবেশে মেয়েদের চলচ্চিত্রে কাজ করতে হয়।’

ববি বর্তমানে দেশ সেরা চিত্রনায়ক শাকিব খানের বিপরীতে ‘নোলক’ সিনেমায় অভিনয় করছেন। রাশেদ রাহা পরিচালিত এ সিনেমার প্রথম লটের শুটিং শেষ হয়েছে। কলকাতার হায়দরাবাদের বিভিন্ন স্থানে দৃশ্যধারণের কাজ হয়েছে।




আসছে সানি লিওনের বায়োপিক, চোখ রাখুন……













বলিউডের বর্তমান সময়ের অন্যতম আলোচিত অভিনেত্রী সানি লিওন। একসময় ছিলেন পর্নো তারকা, এখন তিনি বলিউড অভিনেত্রী। শুধু তাই নয়, আসল নাম করণজিৎ কৌর ভোহরা থেকে এখন হয়েছেন সানি লিওন। তার জীবন ঘিরে অনেকেরই রয়েছে কৌতূহল।

এবার সানির জীবনের অজানা কথাগুলো উঠে আসছে পর্দায়। খুব শিগগির শুরু হচ্ছে সানি

লিওনের বায়োপিকের প্রচার। ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মে ‘জি ফাইভ’ স্ট্রিমিং চ্যানেলে এটি প্রচার হবে। সম্প্রতি ইনস্টাগ্রামে এই তথ্য দিয়েছেন সানি নিজেই।

এ অভিনেত্রী একটি ছবি পোস্ট করে লিখেছেন, ‘আমি কানাডা থেকে কেন চলে এসেছি? কেন আমি সানি নাম নিয়েছি? আমার জীবন কেমন ছিল? সানি নামের পেছনের নারী কে এবং আমার করনজিৎ কৌর থেকে সানি লিওন হওয়ার ব্যাপারে আরো জানুন আমার বায়োপিকে। খুব শিগগির আসছে জি ফাইভ চ্যানেলে।’




উত্তপ্ত বাক্য বিনিময়ের যে শাস্তি পেলেন ওয়ার্নার-ডি কক













সফরকারী অস্ট্রেলিয়া বনাম দক্ষিণ আফ্রিকার মধ্যকার সিরিজের প্রথম টেস্টের চতুর্থ দিনের ঘটনা। ড্রেসিংরুমে যাওয়ার পথে সিঁড়িতে উত্তপ্ত বাক্যবিনিময় করতে দেখা গিয়েছিল অসি সহ-অধিনায়ক ডেভিড ওয়ার্নার ও স্বাগতিক উইকেটরক্ষক কুইন্টন ডি কককে। আইসিসির নিয়মবহির্ভূত এমন ঘটনায় ওয়ার্নারের নামের পাশে বসেছে তিনটি ডিমেরিট পয়েন্ট।

অন্যদিকে, ডি কক পেয়েছেন এক ডিমেরিট পয়েন্ট।

এমন ঘটনার পর শাস্তি ছিল অবধারিত। এবার সেটাই পেলেন দোষী দুই ক্রিকেটার। তবে ওয়ার্নারের সাজাটা একটু বেশিই। অস্ট্রেলীয় এই উদ্বোধনী ব্যাটসম্যানকে দেওয়া হয়েছে আইসিসির দ্বিতীয় স্তরের শাস্তি। অন্যদিকে ডি কক পেয়েছেন প্রথম স্তরের সাজা।

ডিমেরিট পয়েন্টের পাশাপাশি ওয়ার্নারকে করা হয়েছে আর্থিক জরিমানাও। ম্যাচ ফির ৭৫ শতাংশ ওয়ার্নারকে দিয়ে দিতে হবে আইসিসির তহবিলে। টাকার অঙ্কটাও কম নয়, বাংলাদেশি টাকায় প্রায় ১০ লাখ ৮০ হাজার টাকা জরিমানা গুনতে হচ্ছে এই বাঁহাতি ব্যাটসম্যানকে!

দণ্ডপ্রাপ্তিতে ওয়ার্নার কোনো আপিল না করলেও ডি কক নিজের শাস্তির বিপক্ষে করেছেন আপিল। বুধবার সন্ধ্যায় নিজের করা আপিলের শুনানিতেও এসেছিলেন প্রোটিয়া উইকেটরক্ষক।

টেস্টের চতুর্থ দিন চা-বিরতির সময় দুই খেলোয়াড় জড়িয়ে পড়েছিলেন বাদানুবাদে। সিসিটিভি ফুটেজে ওয়ার্নারকেই দেখা গিয়েছিল বেশি আগ্রাসী ভূমিকায়। সঙ্গে ডি ককের প্রত্যুত্তরও নজর এড়ায়নি কারোর।

অবশ্য মাঠ থেকে শুরুটা করেছিলেন ওয়ার্নারই। এরপর ড্রেসিংরুমে যাওয়ার সিঁড়িতে ওয়ার্নার কিছু একটা বলেছিলেন ডি কককে উদ্দেশ করে। পাল্টা জবাবে প্রোটিয়া উইকেটরক্ষকও সমানতালেই জবাব দিয়েছিলেন অসি সহ-অধিনায়ককে। এ ঘটনা আমলে নিয়ে ম্যাচ রেফারি জেফ ক্রো দুজনের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেছিলেন।

সিরিজের প্রথম টেস্ট জিতে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে রয়েছে সফরকারীরা। শুক্রবার পোর্ট এলিজাবেথে শুরু হচ্ছে দুদলের মধ্যকার সিরিজের দ্বিতীয় টেস্ট।




মধ্যরাত পর্যন্ত ব্যস্ত শাহরুখ-ক্যাটরিনা!













কাজকে ভালোবাসেন দুজনেই। আর তাই সকাল থেকে সন্ধ্যা, সন্ধ্যা থেকে রাত হয়ে গেলেও কাজেই ডুবে থাকেন শাহরুখ খান ও ক্যাটরিনা কাইফ। টাইমস অব ইন্ডিয়ার খবরে প্রকাশ, আনন্দ এল রায়ের পরিচালনায় ‘জিরো’ ছবির শুটিংয়ে মধ্যরাত পর্যন্ত শুটিংয়ে ব্যস্ত ছিলেন শাহরুখ-ক্যাটরিনা। আর সে সময় তোলা ছবি সামাজিক মাধ্যমে শেয়ার দিয়েছিলেন দুজনেই,

যা এরই মধ্যে ভাইরাল হয়ে গেছে ইন্টারনেট দুনিয়ায়।

কাজ শেষে বাড়ি ফিরতে গিয়ে ট্রাফিক জ্যামে আটকা পড়েছিলেন শাহরুখ খান। সেখানেই ছবিটি তোলেন তিনি। সামাজিক মাধ্যমে ছবিসহ পোস্টে শাহরুখ লিখেন, ‘গাড়িতে করে আসতে আসতে রাস্তায় আমি এই ছবিটি তুলেছিলাম রঙিন অবস্থায়। কিন্তু ট্রাফিক জ্যামে পড়ে ছবিটির রং ধূসর হয়ে গেছে।’ অন্যদিকে একই রাতে শুটিং সেট থেকে ছবি দিয়েছেন ক্যাটরিনা। যেখানে নিজের চুল ঠিক করতে দেখা গেছে ক্যাটরিনাকে।

‘জিরো’ ছবিতে শাহরুখ-ক্যাটরিনা ছাড়াও অভিনয় করছেন আনুশকা শর্মা। প্রযোজনায় রয়েছেন শাহরুখপত্নী গৌরী খান ও আনন্দ এল রায়। বড়দিন সামনে রেখে চলতি বছরের ২১ ডিসেম্বর ছবিটির মুক্তি পাওয়ার কথা রয়েছে।




বোনকে জড়িয়ে ধরে কাঁদলেন শাকিব, কেন জানেন?













বড় বোন দীপা খন্দকারকে জড়িয়ে ধরে কাঁদলেন কিং খান শাকিব! বাস্তবে নয়, জয়দ্বীপ মুখার্জির পরিচালনায় ‘ভাইজান এলোরে’ ছবিতে দেখা যাবে এমন একটি দৃশ্য। সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ফেসবুকে অভিনেত্রী দীপা সেই দৃশ্যের একটি স্থীরচিত্র প্রকাশ করেছেন। এই ছবিতে দীপা অভিনয় করছেন শাকিবের বড় বোনের চরিত্রে। এদিকে এই ছবির মধ্য দিয়ে

চলচ্চিত্রে অভিষেক হচ্ছে ছোট পর্দার জনপ্রিয় এই অভিনেত্রীর। ছবির শুটিংয়ের জন্য বর্তমানে তিনি কলকাতায় রয়েছেন বলে জানিয়েছেন। দীপা তার চরিত্রটি সম্পর্কে বলেন, ছবিতে প্রধান তিনটি নারী চরিত্রের একটিতে দর্শক আমাকে দেখতে পাবেন।

অন্য দুটি চরিত্রে অভিনয় করছেন ওপার বাংলার পায়েল সরকার ও শ্রাবন্তী চ্যাটার্জি। শাকিবের সঙ্গে কাজ করে অনেক ভালো লাগছে। কাজের ক্ষেত্রে সে অনেক সিরিয়াস। আগামী ১২ই মার্চ পর্যন্ত দীপা কলকাতার একটি জমিদার বাড়িতে দীপা এই ছবির শুটিং করবেন। চলতি মাসের তিন তারিখ থেকে তিনি এই ছবির শুটিং শুরু করেছেন।




এবার ফেসবুক লাইভে এসে যা বললেন ওমর সানী













যারা মৃত্যুর গুজব ছড়াচ্ছেন, তাদের সুস্থতা কামনা করলেন ওমর সানী। বৃহস্পতিবার দুপুরে ফেসবুক লাইভে এসে এ কথা বললেন ‘প্রথম প্রেম’-খ্যাত নায়ক।
হার্টে ব্লক ধরা পড়লে সোমবার রাজধানীর একটি হাসপাতালে ভর্তি হন ওমর সানী। অস্ত্রোপচার করে হার্টে রিং পড়ানো হয়। বুধবার এ নায়ক বাসায় ফিরেছেন। কিন্তু এরই মাঝে

অনলাইনে মৃত্যুর গুজব ছড়িয়েছে।

এ প্রসঙ্গে ওমর সানী বলেন, ‘আমার কাছে প্রচুর ফোন আসছে আমি মারা গেছি। সব কিছুর মালিক আল্লাহ পাক। একদিন তো যেতে হবে। আমি এখন পর্যন্ত সুস্থ আছি। যারা এ প্রপাগান্ডা ছড়াচ্ছেন তাদের সুস্থতা কামনা করছি।’

তিনি আরো জানান, শিগগিরই সিনে ক্যামেরার সামনে ফিরতে চান। সবার কাছে দোয়াও চান।

নব্বই দশকের অন্যতম জনপ্রিয় নায়ক ওমর সানী। শুধু নায়ক নয়, খলনায়ক হিসেবেও তার অভিনয়ের প্রশংসা করেছেন চলচ্চিত্র সমালোচকরা।

ওমর সানী অভিনীত উল্লেখযোগ্য চলচ্চিত্র হলো— চাঁদের আলো, কুলি, এই নিয়ে সংসার, আত্মঅহংকার, মহৎ, প্রথম প্রেম, দোলা ও আখেরি হামলা। বর্তমানে তার হাতে রয়েছে আধা ডজনের মতো সিনেমা। পাশাপাশি বিজ্ঞাপনেও দেখা যায় তাকে।




এবার সানি লিওনকে নিয়ে যে বিস্ফোরক মন্তব্য করলেন রাখি













সবে যমজ সন্তানের মা হয়েছেন সানি লিওন। মহারাষ্ট্রের লাতুর থেকে নিশাকে দত্তক নেওয়ার এক বছরের মধ্যেই ফের দুই পুত্র সন্তানের মা হয়েছেন সানি।

যা নিয়ে বেশ খুশি সানি এবং তাঁর স্বামী ড্যানিয়েল ওয়েবার। দুই সন্তান আসার পর এবার তাঁদের সংসার সম্পূর্ণ হয়েছে বলেও জানিয়েছেন সানি। কিন্তু, অভিনেত্রী যতই দাবি করুন না

কেন তাঁর সংসার এবার সম্পূর্ণ হয়েছে, রাখি সাওয়ান্ত বেশ চটে গিয়েছেন।

সানি লিওনের মা হওয়া নিয়ে বোমা ফাটালেন রাখি। সম্প্রতি একটি ভিডিও শেয়ার করে টেলিভিশনের ‘ড্রামা কুইন’ বলেন, সানি লিওনের মা হওয়ার খবরে তিনি খুশি। কিন্তু, কবে অন্তঃসত্ত্বা ছিলেন সানি? তাঁর সন্তানের জন্মই বা হল কোথায়? তিনি তো কখনও সানিকে অন্তঃসত্ত্বা অবস্থায় দেখেননি, তাই বুঝতে পারছেন না কখন মা হলেন সানি লিওন।

শুধু তাই নয়, সানি যেন তাঁর সন্তানদের ভাল শিক্ষা দেন। ভাল স্কুলে ভর্তি করে যেন ভাল করে তাঁদের পড়াশোনা করান সানি। এমনও মন্তব্য করেন রাখি। পাশাপাশি সানি যেমন পটপট করে ইংরেজি বলেন, তাঁর সন্তানরাও যাতে সেই একইভাবে ইংরেজি বলতে শেখে, সে বিষয়েও কটাক্ষ করেন রাখি। অর্থাৎ, সানির বিরুদ্ধে এবার ফের চটে গিয়ে ক্ষোভ উগরে দেন রাখি সাওয়ান্ত।

সানি লিওন ভারতে আসার পর থেকেই জোর জল্পনা শুরু করেন রাখি সাওয়ান্ত। এমনকী, সানিকে ভারাতবর্ষে থাকতে দেওয়া উচিত নয় বলেও ওই সময় জোর হাঙ্গামা জুড়ে দেন টেলিভিশনের এই জনপ্রিয় অভিনেত্রী।