রাজনীতিতে যোগ দিলেন ভারতীয় তারকা কমল হাসান

ভারতের দক্ষিণ তামিল নাড়ুতে নিজের রাজনৈতিক দল উদ্বোধন করেছেন ভারতীয় তারকা কমল হাসান। মাদুরাই শহরে দলের সমর্থকদের সামনে রাজনীতিতে যোগদানের ঘোষণা দেন ৬২ বছর বয়সী হাসান।

এই রাজ্যে অভিনেতাদের রাজনীতিবিদ হওয়ার চল নতুন নয়। তিনজন সাবেক অভিনেতা মুখ্যমন্ত্রী হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেছেন। এর আগে ২০২১ সালের ডিসেম্বরে প্রাদেশিক নির্বাচনের আগে নিজের রাজনৈতিক দল তৈরির ঘোষণা দেন তামিল অভিনেতা রজনীকান্ত।

কমল হাসান অক্টোবরেই ঘোষণা দিয়েছিলেন যে তিনি রাজনীতিতে আসতে চান। তার দলের নাম ‘মাক্কাল নিধি মায়াম’, প্রেস ট্রাস্ট অব ইন্ডিয়ার প্রতিবেদন অনুযায়ী যার অর্থ ‘জনগণের বিচারের কেন্দ্র’।

হাসান বলেন, তিনি রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার জন্য কাজ করবেন যেন ‘দুর্নীতি ও সাম্প্রদায়িকতা’ রোধে ভূমিকা রাখতে পারেন।

কমল হাসান
এক সময়কার তামিল অভিনেতা ও মুখ্যমন্ত্রী জয়ললিতা জয়রামের মৃত্যুর পর থেকে তামিলনাড়ুতে রাজনৈতিক অস্থিতিশীলতা বিরাজ করছে।

 

দর্শকের সামনে উন্মুক্ত হয়ে পড়ে তরুণীর স্তন, তারপরেও স্কেটিংয়ে মন জয়!

এরিনায় স্কেটিং করছেন। কোথাও কোনও খামতি নেই পারফরম্যান্সে। অথচ ফরাসি আইস স্কেটার গ্যাব্রিয়েলা পাপাদাকিস-এর চোখ ভেঙে যাচ্ছে কান্নায়। শারীরিক কসরতের কারণে নয়। স্কেটিং করার সময় তাঁর পোশাক খুলে গিয়েছে আচমকা। তার ফলে দর্শক থেকে ক্যামেরা— সকলের সামনেই উন্মুক্ত হয়ে পড়ে তরুণী ওই স্কেটারের বাঁ স্তন!

অঝোর কান্নার মাঝেও এক মুহূর্তের জন্যও থেমে যাননি গ্যাব্রিয়েলা। পুরুষ সঙ্গী গুইলাউমে সিজেরন-এর সঙ্গে সমান তালে স্কেটিং করে গিয়েছেন। দর্শকাসন তখন মুগ্ধ ওই জুটির পারফরম্যান্সে।

শীতকালীন অলিম্পিকে যোগ্যতা অর্জনের পর্বে সোমবার আইস স্কেটিং-এ নেমেছিলেন গ্যাব্রিয়েলা এবং সিজেরন। সব কিছুই ঠিকঠাক এগোচ্ছিল। কিন্তু একটা মুহূর্তে এসে সিজেরনের সঙ্গে ‘মুভ’ করার সময় দেখা যায়, গ্যাব্রিয়েলার পোশাকের বাঁ দিকের অংশ নীচের দিকে নামতে শুরু করেছে। হঠাৎই তা খুলে যায়। আর তাতেই উন্মোচিত হয়ে পড়ে তাঁর বাঁ স্তন।

এক লহমায় সকলের সামনে এমন একটা পরিস্থিতি তৈরি হওয়ায় নিজেকে সামলাতে পারেননি ফরাসি ওই তরুণী। তবে ‘ময়দান’ ছেড়ে বেরিয়েও যাননি। শেষ পর্যন্ত পারফর্ম করে যান।

পারফর্ম শেষে গ্যাব্রিয়েলা বলেন, “ভয়ঙ্কর দুঃস্বপ্ন! বারে বারেই নিজেকে বলছিলাম, থামলে চলবে না। এগিয়ে যেতে হবে। একটা সময় তো মনে হচ্ছিল, আর পারব না। সবটাই খুলে যাচ্ছে যেন! শেষ পর্যন্ত টপটা গায়ে থাকবে তো! কান্নায় ভেসে যাচ্ছিলাম। কিন্তু, থামিনি এক বারের জন্যও।’’

ওই পরিস্থিতি এত ভাল পারফরম্যান্স কী করে সম্ভব? গ্যাব্রিয়েলার কথায়, ‘‘সেটা ভেবেই গর্ব হচ্ছে।’’

ভিডিও ক্লিপটি দেখতে ক্লিক করুন 

প্রেমিকাকে সঙ্গে নিয়ে “দেবদাস” উপভোগ করেন জায়ান মালিক!

পুরো বিশ্বেই ছড়িয়ে আছে ওয়ান ডাইরেকশন খ্যাত জায়ান মালিকের লাখো ভক্ত। তারকা খ্যাতির শীর্ষে থাকা এই তারকা সম্প্রতি জানালেন আরেক তথ্য। তবে একজন তারকাও কিন্তু হতে পারেন যে কারো ফ্যান। সেরকম তথ্যই জানালেন কয়েক বছর আগে ওয়ান ডাইরেকশন ব্যান্ড ত্যাগ করা জায়ান। বলিউড বাদশাহ শাহরুখ এর বড় ভক্ত জায়ান সে কথা আগেও বলেছেন।

এবার জানালেন শাহরুখের ছবির দেবদাসের প্রতি ভালো লাগার কথা। জায়ান মালিক যখনই সময় পান প্রেমিকা গিগি হাদিদকে নিয়ে শাহরুখ খান অভিনীত ‘দেবদাস’ দেখতে বসে পড়েন । সম্প্রতি ফ্যাশন ম্যাগাজিন ইলেতে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে এমনটা নিজে মুখে স্বীকার করেছেন সাবেক ‘ওয়ান ডিরেকশন ব্যান্ড’খ্যাত তারকা।

এ প্রসঙ্গে ২৫ বছর বয়সী এই তারকা আরো বলেন , ‘শাহরুখের যে ছবিগুলো আমার ভালো লাগে গিগিও ঠিক সেই ছবিগুলোই পছন্দ করে। তবে কিং খানের অভিনীত ‘দেবদাস’ আমাদের দু’জনের খুব প্রিয়। আমরা বেশ কয়েকবার ছবিটি দেখেছি।’

দর্শক জরিপে ঘৃণ্য এক চরিত্রের নাম ‘জেমস বন্ড’

জেমস বন্ড সিরিজে একজন পেশাদার গোয়েন্দার চিত্র অঙ্কন হয়েছে। যিনি কিনা বিশ্বকে বিভিন্ন সময় বড় ধরনের বিপর্যয় থেকে বাঁচিয়েছেন। যার অসম সাহসীকতায় বেঁচে গেছে অজস্র প্রাণ।

বহু সমস্যা থেকে পরিত্রাণের এ নায়ককেই কিন্তু শুনতে হচ্ছে ভর্তসনা।

সম্প্রতি জনপ্রিয় ডিজিটাল মিডিয়া ‘নেটফ্লিক্স’ জেমস বন্ড সিরিজের সব ছবি মুক্তি দিয়েছে। এর পাশাপাশি চালানো হয় একটি সমীক্ষা।

বন্ডের ২৬টি ছবি দেখার পর ৫৭ শতাংশ দর্শক মত দিয়েছেন ঘৃণ্য এক চরিত্রের নাম জেমস বন্ড।

নিজের স্বার্থসিদ্ধির জন্য বন্ড সবাইকে ব্যবহার করতেন। মহিলার সঙ্গে প্রেমের ভান করে তাদের কাজে লাগান। উনি একজন দুশ্চরিত্র। যে কিনা কথার জালে ফাঁসিয়ে মহিলাদের বিছানায় নিয়ে যান, যা ধর্ষণের চেয়ে কম নয়। তা ছাড়া কৃষ্ণাঙ্গদের সঙ্গে জেমসের ব্যবহার অত্যন্ত অপমানজনক।

১৯৬২-৮২ সালের বন্ডের সিনেমাগুলোতে প্রধান চরিত্রে দেখা গিয়েছিল শন কোনরিকে। সেই বন্ড সম্পর্কে দর্শকদের মূল্যায়ন ‘লিঙ্গবৈষম্যকারী ও সমকামীদের ঘৃণাকারী।’

আরেক বন্ড রজার মুর সম্পর্কে দর্শকদের মতামত, ‘জাতিবিদ্বেষে ভরা একটি চরিত্র।’

আর ড্যানিয়েল ক্রেগের সম্পর্কে দর্শকদের বিশ্লেষণ- ‘প্রচারপ্রিয়’।

‘স্ত্রীকে ছেড়ে জোলিকে বিয়ে করা জীবনের বড় ভুল’

অবশেষে কি তাহলে নিজের ভুলটা বুঝতে পারলেন হলিউডের বিখ্যাত অভিনেতা ব্র্যাড পিট। তার সাম্প্রতিক এক মন্তব্যে এমনই আভাস মিলেছে এবার। অ্যাঞ্জেলিনা জোলির রূপে ভুলে জেনিফার অ্যানিস্টনকে ছেড়ে আসা তার জীবনের সবথেকে বড় ভুল সিদ্ধান্ত বলেই সূত্রের বরাত দিয়ে ইন্ডিয়া টুডের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

এখন যখন তার আর জেনিফারের সঙ্গে পুরনো সম্পর্ক ঝালিয়ে নেওয়ার কোনও সম্ভাবনা নেই, ব্র্যাড বুঝতে পারছেন, আজও তাকে কতটা ভালবাসেন তিনি। ৯ বছর সম্পর্কে থাকার পর ২০১৪ সালে বিয়ে করেন হলিউডের দুই তারকা ব্র্যাড পিট ও অ্যাঞ্জেলিনা জোলি। কিন্তু গত বছর ব্র্যাঞ্জেলিনার ছাড়াছাড়ি হয়ে যায়।
ব্র্যাড জানিয়েছেন, এখন নিজেকে স্পষ্ট করে দেখছেন তিনি, নিজের আবেগ পরিষ্কার বুঝতে পারছেন। এর মধ্যে অবশ্য বেশ অনেক ঘটনাই ঘটেছে আরও।জেনিফারও বিয়ে করেছেন ২০১৫ সালে, ওয়ান্ডারলাস্টে তার সহ অভিনেতা জাস্টিন থেরক্সকে। ব্র্যাড নাকি বলেছেন, জেনিফারের নতুন সংসার তছনছ করার তার কোনও ইচ্ছা নেই। কিন্তু মনে মনে তাকেই ভালবেসে যাবেন তিনি।

ইন্ডিয়া টুডে বলছে, মিস্টার অ্যান্ড মিসেস স্মিথে অভিনয় করতে গিয়ে অ্যাঞ্জেলিনার প্রেমে পড়েন ব্র্যাড পিট। সে সময় তিনি জেনিফারের সঙ্গে বিবাহসূত্রে আবদ্ধ ছিলেন। স্ত্রীর সব আবেদন, অনুরোধ অগ্রাহ্য করে তাকে ডিভোর্স দেন তিনি। জেনিফা এই সিদ্ধান্তে ভেঙে পড়েছিলেন। তারপর ১১ বছর ধরে চলে ব্র্যাঞ্জেলিনা জুটির রূপকথা।

শোনা যাচ্ছে, মাসদুয়েক আগে ব্র্যাড ক্ষমা চেয়েছেন জেনিফারের কাছে, তাকে ছেড়ে অ্যাঞ্জেলিনার কাছে যাওয়ার জন্য। প্রাক্তন স্বামীকে ক্ষমা চাইতে দেখে জেনিফার নাকি কেঁদে ফেলেন, বহু বছর ধরে মনে পুষে রাখা তিক্ততা ধুয়ে যায় চোখের জলে।

কে এই সুন্দরী, কেন তিনি আজ বিখ্যাত? দেখুন কিছু ছবিতে

বছর দশেক আগের কথা। মা ও ভাই-বোনদের হাত ধরে দক্ষিণ সুদান থেকে রিফিউজি ক্যাম্প হয়ে কেনিয়া যান তিনি। অবশেষে খালি পায়ে পৌঁছান যুক্তরাষ্ট্রে। সে সময় তার বয়স ছিল মাত্র ১৪ বছর।

তিনি আর কেউ নন, আন্তর্জাতিক মডেলিং দুনিয়ায় যার পরিচিতি ‘কুইন অফ দ্য ডার্ক’ নামে; তার প্রকৃত নাম নেয়াকিম গ্যাটওয়েক। ‘মডেল’ শব্দের অর্থ কী, ১৪ বছর বয়স পর্যন্ত সেটাই জানতেন না তিনি।

ভাগ্যের কী লীলা! ২৪ বছর বয়সে এসে সেই তারই ইনস্টাগ্রামে ফলোয়ারের সংখ্যা প্রায় তিন লাখ। অথচ এক সময় গায়ের রংয়ের কারণে উঠতে-বসতে তাকে হয়রানির শিকার হতে হয়েছে।

নেয়াকিম জানান, যুক্তরাষ্ট্রে এসে তিনি স্কুলে ভর্তি হন। প্রথম দিকে সেখানেও তাকে গায়ের রঙের জন্য বিড়ম্বনায় পড়তে হয়। কিন্তু হার মানার মেয়ে নন তিনি।

নিজের সাফল্যের প্রধান কারণ হিসেবে নেয়াকিম জানান, নিজেকে ভীষণ ভালবাসি। ভালবাসি আমার গায়ের রং। নিজেকে ভাল না বাসলে, অন্য কেউ আপনাকে ভালবাসবে না।

সফল এই মডেল চান বিশ্ব দরবারে সুদানের কথা তুলে ধরতে। তার খুব ইচ্ছে, নিজের জন্মভূমির জন্য কিছু করার। বিশেষ করে সেখানকার ছোট ছোট অসহায় মেয়েদের জন্য কিছু করার।

শাহরুখ ও ট্রাম্প কন্যার নৈশভোজ, মেন্যুতে যা থাকছে

বিশ্ব উদ্যোক্তা সম্মেলনে অংশ নিতে ভারতে এসেই দেশবাসীর মন জিতেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের মেয়ে ও উপদেষ্টা ইভাঙ্কা ট্রাম্প।  তারই সম্মানে আজ গ্র্যান্ড ডিনারের আয়োজন করা হয়েছে।

আর এ ডিনার আয়োজনের দায়িত্ব পড়েছে বলিউড কিং শাহরুখ খানের ওপর।

জানা গেছে, হায়দরাবাদের ফলকনামা প্যালেসেই আয়োজন করা হচ্ছে এক সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের। তার সঙ্গে রয়েছে গ্র্যান্ড ডিনার।  এই অনুষ্ঠানে শাহরুখ ছাড়াও বি-টাউনের একঝাঁক তারকার থাকার কথা রয়েছে।

ডিনারে কী কী থাকছে ইভাঙ্কার জন্য? 

  • মুরগ পেস্তা কা সালান
  • সীতাফল কুলফি
  • দহি কে কাবাব
  • গোস্ত সিকমপুরি কাবাব
  • কুবানি কে মালাই কোফতা
    সূত্র: জি নিউজ