বিয়ের পর কী কারণে মোদির বাসায় কোহলি-আনুশকা?

ইতালিতে বিয়ের পর মধুচন্দ্রিমা শেষে আগের দিনই ভারতে ফিরেছেন বিরাট কোহলি ও আনুশকা শর্মা। আজ দুজন ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে তার বাসায় দেখা করেছেন।

মোদির বাসায় তিনজনের একটি ছবি সংবাদমাধ্যমে প্রকাশ পেয়েছে। সেখানে দেখা যাচ্ছে, মোদির হাতে একটি ব্যাগ তুলে দিচ্ছেন কোহলি, তার পাশে দাঁড়িয়ে আনুশকা।

ধারণা করা হচ্ছে, বৃহস্পতিবার নয়াদিল্লিতে হতে যাওয়া বিবাহোত্তর সংবর্ধনার দাওয়াত দিতে মোদির বাসায় গিয়েছিলেন কোহলি-আনুশকা দম্পতি।


প্রধানমন্ত্রীর অফিস থেকে পাঠানো এক বিবৃতিতে মোদি কোহলি-আনুশকা দম্পতিকে অভিনন্দন জানিয়েছেন।

গত ১১ ডিসেম্বর ইতালির তাসকেনি প্রদেশের ফ্লোরেন্সে এক ঐতিহ্যবাহী রিসোর্টে গাঁটছড়া বাঁধেন কোহলি-আনুশকা। বিয়ের পর টুইটারে এক যৌথ বিবৃতিতে দুজন বলেন, ‘আজ আমরা একে অন্যকে কথা দিলাম সারাজীবন ভালোবাসার বাঁধনে বেঁধে রাখার।’

বৃহস্পতিবার নয়াদিল্লির হোটেল তাজ প্যালেসে কোহলি-আনুশকার পরিবারের লোকজনকে নিয়ে বিবাহোত্তর সংবর্ধনা হবে। বলিউড ও ক্রিকেট অঙ্গনের তারকাদের নিয়ে মুম্বাইয়ে আরেকটি অনুষ্ঠান হবে ২৬ ডিসেম্বর।

তথ্যসূত্র : ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস।

একসঙ্গে ওমরা হজ পালনে সাকিব-নাফিস-অনন্ত

বাংলাদেশের প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) ৫ম আসর শেষে দুবাইয়ে প্রথম বারের মতো অনুষ্ঠিত টি-টেন লিগে অংশ নিয়েছিলেন বাংলাদেশ জাতীয় দলের টি-টোয়েন্টি ও টেস্ট অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। বিপিএলে ব্যর্থ হলেও টি-টেনে শিরোপা জিতেছে তার দল কেরালা কিংস।

টুর্নামেন্ট শেষে ওমরাহ হজের উদ্দেশ্যে দুবাই থেকে সপরিবারে সৌদি আরবে রওয়ানা দেন সাকিব আল হাসান। সেখানে পৌঁছানোর পর মিলন হয় শোবিজ তারকা অনন্ত জলিল ও সর্তীথ শাহরিয়ার নাফিসের সঙ্গে। ১৭ ডিসেম্বর ওমরা হজের উদ্দেশ্যে সৌদি যান অনন্ত জলিল। অন্যদিকে বিপিএল শেষ করে গিয়েছিলেন শাহরিয়ার নাফিস। সৌদি আরবে একটি ফ্রেমে দেখা গেছে এই তিন তারকাকে।

উল্লেখ্য, সাকিব আল হাসানের স্পোর্টস এজেন্টের দেয়া তথ্যমতে, ২৪ ডিসেম্বর দেশে ফিরবেন এই ক্রিকেটার। সৌদি আরবে অবস্থানের জন্য আজ থেকে শুরু হওয়া জাতীয় লিগের শেষ পর্বে অংশ নিতে পারেননি সাকিব।

দেশে ফিরলেও সমালোচনা থামছে না বিরুশকার!

বেশ কয়েক সপ্তাহ ধরেই ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলি ও বলিউড সুন্দরী অানুশকা শর্মার বিয়ে নিয়ে সরগরম ছিল খবরের দুনিয়ায় ৷ প্রতি ঘণ্টায় বিরাট ও অানুশকা কী করছেন, তা জানতেই যেন উদগ্রীব ছিল তাদের ভক্তকুল।

বিরাট ও অানুশকার বিয়েকে একদিকে যেমন লোকে প্রশংসা করেছেন, তাদের শুভেচ্ছাও জানিয়েছেন, অন্যদিকে বিরুশকার বিয়ে নিয়ে মোটেই খুশি নন ভারতের মধ্যপ্রদেশের বিজেপি নেতা পান্নালাল শাখ্য! ইতালিতে বিয়ে করার কারণে বিরাটকে দেশদ্রোহী বলে কটাক্ষ করলেন তিনি।

বিজেপি নেতা পান্নালালের কথায়, ‘রাম, কৃষ্ণ, যুধিষ্ঠীর এরা সবাই এই ভারতবর্ষে বিয়ে করেছেন। আর বিরাট কোহলি এই দেশে নাম করেছেন, টাকা কামিয়েছেন, কিন্তু বিয়ে করলেন বিদেশে গিয়ে, বিরাটের এই আচরণ প্রমাণ করে, তিনি দেশপ্রেমী নন !’

কেমন যাচ্ছে কোহলি-আনুশকার দাম্পত্য জীবন?

তারা একে অন্যের সঙ্গে গাঁটছড়া বেঁধেছেন ১১ ডিসেম্বর। তবে বেশ গোপনীয়তায়। দেশের বাইরে। ইতালিতে। তবে পাত্র-পাত্রী যখন বিরাট কোহলি আর আনুশকা শর্মা তখন সেই খবর কি আর গোপন ছিল? আগে থেকেই গুঞ্জন ছিল এই দিনটায় বিয়ের পিঁড়িতে বসবেন ভারতীয় ক্রিকেট দলের অধিনায়ক ও বলিউড সুন্দরী। সেই গুঞ্জনের সত্যতার প্রকাশ অবশ্য দুজনের মাধ্যমেই। যখন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভক্তদের খরবটা দিলেন তারা। দুজনে একে অন্যের হওয়ার পর কেটে গেল সাতদিন। তা কেমন কাটছে তাদের সময়?

ইতালির তুসকানিতে তাদের বিয়ের অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন শুধুই দুই পরিবারের ঘনিষ্ঠ ক’জন। সেই বিয়ের অনুষ্ঠানের যে গুটিকয়েক ছবি প্রকাশ পেয়েছে তা সোশাল মিডিয়ায় ভাইরাল হতে সময় নেয়নি। তাদের বিয়ের অনুষ্ঠানের ছবিগুলোই ইন্টারনেটে ঘুরছে এখনো। ইতালিতে বিয়ের কাজটা সেরে এখন ফিনল্যান্ডে হানিমুন কাটাচ্ছেন এই সময়টায় ভারতের সবচেয়ে আলোচিত তারকা দম্পতি। সময়টা যে দারুণ আনন্দে কাটছে সেটি বোঝা যাবে ইনস্টাগ্রামে কোহলির পোস্ট করা নতুন ছবিতে।

ফিনল্যান্ডের প্রাকৃতিক সৌন্দর্যে ডুবে থাকার কোন ছবি নয়, ঘরের ভেতরেরই ছবি প্রকাশ করেছেন কোহলি। কোলহির সঙ্গে আনুশকা এবং আরো দু’জন। ছবিতে তাদের পোজগুলোই বলে দিচ্ছে আসলে কি নির্মল আনন্দে কাটছে প্রতি মুহূর্ত। কতোটাই না উপভোগ করছেন এই সময়। নতুন জীবনের নতুন ইনিংসের শুরুটা বর্ণময়। নতুন এই ছবিগুলো তাই মুহূর্তেই ভক্তদের মাঝে সাড়া ফেলেছে ব্যাপক।

যেহেতু খুব গোপনীয়তায় বিয়েটা হয়েছে তাদের তাই ক্রিকেট এবং বলিউড দুই জগতের কেউই দুজনকে সামনা-সামনি অভিনন্দন জানাতে পারেননি। সেই অপেক্ষাও অবশ্য ফুরোচ্ছে। দেশে ফিরে ২১ ডিসেম্বর দিল্লি ও ২৬ ডিসেম্বর মুম্বাইয়ে বিবাহোত্তর সংবর্ধনা আয়োজন করতে যাচ্ছেন কোহলি-আনুশকা।

জানেন, বিরাট কোহলির চেয়ে বয়সে কত দিনের বড় আনুশকা?

বহু প্রতীক্ষা, বহু জল ঘোলা।  অতঃপর, গত ১১ ডিসেম্বর ইতালির তাসকানিতে বিলাশ বহুল এক রিসোর্ট ভাড়া করে সেখানে চার হাত এক হয় খেলার ও বিনোদন জগতের দুই মেগাস্টার বিরাট কোহলি ও আনুশকা শর্মার।  অনেকটা চুপিসারেই বিয়ের কাজটা সারেন বহুদিনের এ লাভবার্ড জুটি।  দুই পরিবারের সদস্যরা ছাড়া উল্লেখ করার মতো তেমন কেউই উপস্থিত ছিলেন না সেখানে।

সবই ঠিক আছে।  কিন্তু আলোচনাটা নবদম্পতির বয়স নিয়ে।  স্বামী ক্রিকেটার বিরাট কোহলির জন্ম ১৯৮৮ সালের ৫ নভেম্বর।  অন্যদিকে, আনুশকা শর্মার জন্ম একই বছরের ১ মে।  দুজনের বয়সই ২৯।  কিন্তু মাসের হিসাবে স্বামী বিরাট কোহলির চেয়ে স্ত্রী আনুশকা শর্মা ৬ মাসের বড়।


ভালোবাসার কাছে ধনী-গরীব, ধর্ম ও বয়স যে কোনো বাধা হতে পারে না সেটার বহু নজীরই খেলার ও বিনোদন জগতের তারকারা কালে কালে দেখিয়েছেন।  যেখানে বয়সে অনেক ছোট স্বামীর সঙ্গে একাধিক অভিনেত্রীকে ঘর-সংসার করতে দেখা গেছে।  আর সেখানে আনুশকা তো বিরাটের চেয়ে মাত্র ৬ মাসের বড়।  তাছাড়া, মনে মনে যদি মিল থাকে, তবে বয়সের অমিলে কী আসে যায়?

রূপকথার বিয়েপর্ব শেষে ইতালিতেই রয়েছেন নবদম্পতি।  দেশে ফিরে দিল্লি ও মুম্বাইতে রিসেপশন পার্টির আয়োজন করবেন তারকা জুটি বিরাট-আনুশকা।  আগামী ২১ ডিসেম্বর বিরাটের তরফ থেকে এবং ২৬ ডিসেম্বর আনুশকার তরফ থেকে রিসেপশন পার্টি দেয়া হবে।

নবদম্পতিকে আশির্বাদ জানাতে দুই পার্টিতেই উপস্থিত থাকবেন শচিন টেন্ডুলকার, যুবরাজ সিং, শাহরুখ খান, আমির খান-সহ ক্রীড়া ও বিনোদন জগতের অনেক তারকা, মহাতারকা।

রোহিতের মজার ‘আবদার’ শুনে ‘দুষ্টু’ হাসি নববধূ আনুশকার

দীর্ঘ জল্পনার অবসান ঘটিয়ে ১১ ডিসেম্বর ইতালিতে বিয়ে সেরেছেন বিরাট কোহলি এবং আনুশকা শর্মা। বিয়ে উপলক্ষে দেশ-বিদেশের বহু তারকাই সোশ্যাল মিডিয়ায় শুভেচ্ছা জানিয়েছেন নবদম্পতিকে। বাদ যাননি ভারতীয় ওপেনার রোহিত শর্মাও।

১২ তারিখ একটি টুইট করে বিরাট ও আনুশকা, দু’জনকেই শুভেচ্ছা জানান রোহিত। টুইটে মজা করে তিনি লেখেন, ‘‘দুজনকেই শুভেচ্ছা। বিরাট, তোমার সঙ্গে আমি হাজব্যান্ডদের হ্যান্ডবুক শেয়ার করব।’’ আর এর পরেই রোহিত মজার আবদার করে বসেন  কাছে। তিনি লেখেন, ‘‘আনুশকা, পদবিটা পরিবর্তন কোরো না।’’

মুহূর্তে ভাইরাল হয়ে যায় রোহিতের টুইট। এই টুইটকে কেন্দ্র করে ভক্তরা একের পর এক মজার রিটুইট করতে থাকেন।

হিটম্যানের টুইটের জবাব দিয়েছেন ও। এদিন টুইট করে আনুশকা লেখেন, ‘‘হাহাহা ধন্যবাদ রোহিত! আর তোমাকেও অভিনন্দন এমন অসাধারণ ইনিংস উপহার দেওয়ার জন্য।’’

প্রসঙ্গত, শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে একদিনের সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে একাই ডবল সেঞ্চুরি করে রেকর্ড গড়েছেন রোহিত। ১৫৩ বলে অপরাজিত ২০৮ রানের একটি ইনিংস খেলেন তিনি।

যেভাবে মাশরাফিকে পিছনে ফেললেন সাবিলা নূর!!

সম্প্রতি গুগল ট্রেন্ডসের ওয়েবসাইটে ট্রেন্ডিং সার্চের তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে। দেশভিত্তিক ও বৈশ্বিকভাবে গুগল সার্চ ট্রেন্ড দেখা যাচ্ছে। গুগল বেশ কিছু ক্যাটাগরি বা বিভাগ হিসেবে সার্চ ট্রেন্ড প্রকাশ করেছে।

বাংলাদেশকে নিয়ে ‘সার্চেস’,‘পিপল’ ও ‘নিউজ’—এই তিনটি ট্রেন্ড প্রকাশ করেছে গুগল। এর মধ্যে ‘পিপল’ অংশে ১০ জনের নামের তালিকা দিয়েছে। তাঁদের মধ্যে শীর্ষে আছেন সাবিলা নূর । তারপর আছেন মার্কিন মডেল মিয়া খলিফা। তিন নম্বরে আছেন ক্রিকেটার তাসকিন আহমেদ।

এরপরই আছেন ঢাকাই ছবির নায়ক শাকিব খান। জনপ্রিয় অভিনেতা মোশাররফ করিম আছেন পাঁচ নম্বরে। সার্চ ট্রেন্ডে জায়গা করে নিয়েছেন মিস ওয়ার্ল্ড প্রতিযোগিতায় অংশ নেওয়া জান্নাতুল নাঈম এভ্রিল।

তারপর আছেন জনপ্রিয় ক্রিকেট তারকা মাশরাফি বিন মুর্তজা। এরপরের অবস্থানে বাংলাদেশি ইউটিউবার তৌহিদ আফ্রিদি। অভিনেত্রী শবনম বুবলীকেও এ বছর মানুষ খুঁজেছে বেশি। তিনি আছেন নয় নম্বরে। এ ছাড়া দশম স্থানে আছেন সংগীতশিল্পী আতিফ আসলাম।

‘সার্চেস’ বিভাগে সবচেয়ে বেশি খোঁজা হয়েছে তির, জাগ্গা জাসুস, দঙ্গল, আইপিএল, এসএসসি রেজাল্ট, মুন্না মাইকেল, হাফ গার্লফ্রেন্ড, ডব্লিউডব্লিউই এক্সট্রিম রুলস, রাবতা ও বিপিএল।

‘নিউজ’ বিভাগে খোঁজা হয়েছে শিবাত্রি অ্যাসল্ট, জেএসসি কোয়েশ্চেনস, রোহিঙ্গা, আর্জেন্টিনা সাবমেরিন, বাংলাদেশি সেক্স অফেন্ডারস, একটি বাড়ি একটি খামার, মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ, দুর্গাপূজা, চিকুনগুনিয়া, সাইক্লোন মোরা।

বৈশ্বিক স্তরে শীর্ষ যে পাঁচটি বিষয় মানুষ বেশি গুগলে খুঁজেছে, সেগুলো হলো হারিকেন ইরমা, আইফোন এক্স, ম্যাট লয়্যার ও মেগান মার্কেল। ‘হাউ টু’ বিভাগে মানুষ খুঁজেছে—হাউ টু মেক স্মাইল, মেক সোলার একলিপস গ্লাস, বাই বিটকয়েন, ওয়াচ মে ওয়েদার ভার্সেস ম্যাকগ্রেগর ও মেক আ ফিজেট স্পিনার।

এ ছাড়া ‘কনজুমার টেক’ বিভাগে এ বছর মানুষ বেশি খুঁজেছে আইফোন ৮, আইফোন এক্স, নিনটেনডো সুইচ, স্যামসাং গ্যালাক্সি এস ৮ ও এক্সবক্স ওয়ান এক্স। এ ছাড়া নকিয়া ৩৩১০, রেজার ফোন, অপো এফ ৫, ওয়ানপ্লাস ৫ ও নকিয়া ৬ ঘিরে ছিল মানুষের আগ্রহ।