পরীর ‘অন্তর জ্বালা’ নিয়ে সহকর্মীরা কী ভাবছেন?

রেহেনা আক্তার রেখা: আর মাত্র দুইদিন পর সারাদেশে ১৭৫টি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পেতে যাচ্ছে জনপ্রিয় পরিচালক মালেক আফসারীর পরিচালিত পরী-জায়েদের ‘অন্তর জ্বালা’। ইতোমধ্যে ছবিটির ট্রেইলার ইউটুবে ঝড় তুলেছে। দর্শকরা আশা প্রকাশ করছেন বাংলা সিনেমায় আবারও একটি ভাল ছবি হতে যাচ্ছে।

শুধু তাই নয় পরীর ‘অন্তর জ্বালা’  ছবিটির ব্যাপারে তাঁর সহকর্মীদের কাছে বেশ উৎসাহ দেখা গিয়েছে। এদিকে আজকে পরীমনি তাঁর ভেরিফাইড ফেসবুক পেইজে  ‘অন্তর জ্বালা’  নিয়ে তাঁর  সহকর্মীদের উচ্ছ্বাস প্রকাশ করা কয়েকজনের ভিডিও শেয়ার করেছেন।

জনপ্রিয় অভিনেতা সানমন ‘অন্তর জ্বালা নিয়ে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করে বলেন, ‘‘আপনারা জানেন পরীমনির অন্তর জ্বালা মুভিটটি মুক্তি পেতে যাচ্ছে আগামী ১৫ ডিসেম্বর। এই মুভিতে অভিনয় করেছেন আমাদের সবার প্রিয় জায়েদ ভাই আর পরীমনি। পরীমনির কথা একটু আলাদাভাবে বলতে চাই পরীমনির সাথে আমার প্রথম ছবি ‘‘রানা প্লাজা’’। যদিও দূর্ভাগ্যবশত সিনেমাটি এখনো মুক্তি পাইনি।

এর পর তাঁর সাথে আমার ছবি ‘পুড়ে যায় মন’’ যেটি আপনার পছন্দ করেছেন। তিনি আরো বলেছেন,‘ অন্তর জ্বালা’ সিনেমা সম্পর্কে আমি যতটুকু জানি আশাকরি দর্শক আপনার এই মুভিটি আপনাদের ‘অন্তরে জ্বালা’ দিবেনা বরং অন্তরে তৃপ্তি দিবে। সবাইকে অনুরোধ রইলো এই মুভিটি দেখার জন্য’’।

এদিকে নায়ক আসিফ ইমরোজ ‘অন্তর জ্বালা’ সিনেমা প্রসঙ্গে বলেছেন, ‘‘ একটি কথাই বলবো বাংলাদেশী সিনেমার আবারও জয় হতে যাচ্ছে এই সিনেমার হাত ধরেই। এই সিনেমা অবশ্যই হিট হবে। তিনি আরো বলেছেন, আমার যে ভক্তরা আছেন প্লিজ আপনারা এই মুভিটি হলে গিয়ে দেখবেন’’।

অন্যদিকে জনিপ্রয় অভিনেতা সজল বলেছেন, ‘‘পরীমণি আমরা একজন অত্যন্ত পছন্দের মানুষ, ব্যক্তিমানুষ হিসেবে আমি তাকে অনেক পছন্দ করি।এছাড়া জায়েদ ভাই এই মুভিটিতে অভিনয় করেছে আর মুভিটি পরিচালনা করেছেন আমাদের সবার প্রিয় মালেক আফসারী স্যার। তিনি আরো বলেছেন এই মুভিটির ট্রেইলার আমাকে মুগধ করেছে’’।

স্ক্রিণশর্টগুলি পরীমনির ভেরিফাইড ফেসবুক পেইজ থেকে নেওয়া।

আজ জীবনের ৬৭টি বসন্ত পার করেছেন সুপারস্টার রজনীকান্ত

জুমবাংলা ডেস্ক: ১৯৫০ সালে ঠিক আজকের এই দিনে জন্মগ্রহণ করেন ভারতীয় চলচ্চিত্র জগতের এক উজ্জ্বল নক্ষত্র সুপারস্টার রজনীকান্ত। বলতে বলতে বলতে আজ জীবনের ৬৭টি বসন্ত পার করে দিয়েছেন জনপ্রিয় এই অভিনেতা। শুভ জন্মদিন রজনীকান্ত। জুমবাংলার পক্ষ থেকে আপনার জন্য রইলো অনেক অনেক শুভ কামনা।

তিনি শুধু অভিনেতা নন, তিনি একজন গণমাধ্যম ব্যক্তিত্ব এবং সাংস্কৃতিক প্রতীক। তিনি সাউথের সবচেয়ে বড় সুপারস্টার বলে খ্যাত। জনপ্রিয় এই অভিনেতার হাটার একটা স্টেপেই কোটি ভক্তের প্রাণ জুড়িয়ে যায়, যার হাতের আঙ্গুলের নাড়ানিতে মিলিয়ন মিলিয়ন করতালি পরে,যার মুভি রিলিজে সরকারি ছুটি ঘোষনা হয়,যার উদ্দেশ্যে ট্রিবিউট করে বলিউডের মেগাস্টার শাহরুখ খান ট্রিবিউট দেন, যার নাম পাঠ্যবইয়ের পাতায় পাতায় থাকে,যার নামের পূজা হয় চেন্নাই,।

এত বড় একজন অভিনেতা হওয়ার পরও তাঁর জীবনযাপন অতি সাধারণ। একবার তামিলনাড়ুর মন্দিরে তাকে হুট করে ভিক্ষুক ভেবে পয়সা দেওয়ার মত কাজও করেছিলেন এক নারী। জীবনের ৬৭ টি বছর পার করেও তিনি এখনো অনেক জনপ্রিয় ।

উল্লেখ্য, রজনীকান্ত চলচ্চিত্র জগতে অভিষেক করেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত তামিল সিনেমা অপূর্ব রাগাঙ্গাল (১৯৭৫) এ অভিনয়ের মাধ্যমে। এই সিনেমার পরিচালক কে.বলচন্দ্র, যার উপদেশে তিনি সিনেমাতে অভিনয় করেন। ভারতের বিভিন্ন অঞ্চলের সিনেমায় অভিনয়ের পাশাপাশি তিনি যুক্তরাষ্ট্রের চলচ্চিত্রসহ অন্যান্য দেশের সিনেমাতেও অভিনয় করেছেন।

তিনি ১৯৭৩ সালে মাদ্রাজ আসেন “মাদ্রাজ ফিল্ম ইনিস্টিটিউট” থেকে অভিনয়ের উপর ডিপ্লোমা পড়ার জন্য। তামিল চলচ্চিত্রে বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করতে করতে রজনীকান্ত একসময় অভিনেতা হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হয়। তারপর থেকে ভারতীয় জনপ্রিয় সংস্কৃতিতে তিনি “ অভিনয় দেবতা” হিসেবে জনপ্রিয় হন। সিনেমায় তার আচরণ এবং সংলাপের ধরন তার জনপ্রিয়তা বৃদ্ধিতে ভূমিকা রাখে।

শুধু তাই নয় জ্যাকি চ্যানের পর এশিয়ার সর্বোচ্চ পারিশ্রমিক গ্রহণকারী তারকা হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হন তিনি। ২০১৩ সালে, তিনি ছয়টি “তামিলনাডু স্টেট চলচ্চিত্র পুরস্কার” অর্জন করেন। এছাড়া ভারতের তৃতীয় বেসামরিক সম্মান পদ্মভূষণ অর্জন করেন জনপ্রিয় এই অভিনেতা।

তথ্যসূত্র: সাউথ ইন্ডিয়ান মুভি ফ্রিক ফেসবুক গ্রুফ থেকে নেওয়া।

আবারও বিয়ে করতে যাচ্ছেন মোশাররফ করিম!

জুমবাংলা ডেস্ক: আবারও বিয়ে করতে যাচ্ছেন জনপ্রিয় অভিনেতা মোশাররফ করিম। ভাবছেন এই কি সম্ভব? মোশাররফ- জুইঁ এর এমন চমৎকার একটি জুটির ভাঙ্গন শুরু কবে থেকে হল আবার? ভাবছেন, জুঁই এর মত এত সুন্দরী একটি বউ থাকতে মোশাররফ কোন দুঃখে আবার বিয়ে করতে যাচ্ছেন। তাহলে ভুল ভাবছেন। কারণ মোশাররফ করিম বিয়ে করছেন ঠিকই তবে সেটা বাস্তবে নয় ‘শুকনো পাতার নূপুর’ নামক একটি নাটকে।

এই নাটকে পর পর তিনটি বিয়ের করতে দেখা যাবে মোশাররফ করিমকে। এদিকে এই নাটক নিয়ে মোশাররফ করিমের ভেরিফাইড ফেসবুক ফ্যান পেইজে এক ভক্ত লিখেছেন, ‘‘তৃতীয় বিয়ে করতে চান মোশাররফ করিম! হেলাল (মোশাররফ করিম) বাবা-মায়ের একমাত্র আদরের সন্তান, গ্রামে অনেক সহায় সম্পত্তি রেখে হেলালের বাবা মারা গেছেন অনেক আগেই।

সন্তান-সন্ততির আশায় হেলালের মা হেলালের দুই বিয়ে দেয়, কিন্তু দুই বিয়ে করার পরও কোনো সন্তান না হওয়ায়, হেলালের মা তাকে আবার বিয়ে করানোর জন্যে উঠে পরে লাগে।

বড় বউ উর্মিলা শ্রাবন্তী কর ও ছোট বউ মন্দিরা এদের মধ্যে দ্বন্দ্ব-বিচ্ছেদ নতুন কিছু নয়। হেলালের সাথে বড় বউ ও ছোট বউয়ের সম্পর্কের টানাপোড়েন, হেলালের মায়ের সাথে হেলাল ও তার বউদের সম্পর্কের পট পরিবর্তনকে তুলে ধরা হয়েছে বাস্তবতা ও হাস্য কৌতুকের মাধ্যমে।

হেলালের মা কি হেলালকে আবার বিয়ে দিতে পারবে? দুই বউয়ের চাপের মুখে হেলাল কি পারবে বিয়ে করতে? আদৌ কি সন্তানের মুখ দেখতে পারবে হেলাল? সব প্রশ্নের উত্তর মিলবে ‘শুকনো পাতার নূপুর’ নাটকে।

শাহাজাদা মামুনের রচনা ও পরিচালনায় এ ধারাবাহিকে অভিনয় করেছেন মোশারফ করিম, মন্দিরা, উর্মিলা প্রাবন্তী কর, মামুনুর রশীদ, তানহা, শিরিন আলম প্রমুখ’’। তিনি আরো লিখেছেন,আগামী শনিবার  থেকে নাটকটি হওয়ার সম্ভাবনার কথা জানা গিয়েছে।

 

 

 

এবার অস্ট্রেলিয়ায় উড়াল দিবেন শাকিব!

রেহেনা আক্তার রেখা: ঢালিউডের কিং খান নামে খ্যাত শাকিব খান বিচ্ছেদের মত কঠিন বোঝা মাথায় নিয়েও দিব্যি শুটিং করে বেড়াচ্ছেন। এদিকে অপু বিশ্বাসের কাছে ডিভোর্স লেটার পাঠানোর পর থেকে সারা দেশে শুরু হয়েছে সমালোচনার ঝড়। একটি অবুঝ শিশুকে রেখে অপুকে ডিভোর্স দেওয়ার বিষয়টা সারাদেশের মানুষদের নাড়া দিয়েছে।

সবার একটিই কথা ফুটফুটে বাচ্চাটির দিকে তাকিয়ে হলেও শাকিব খানের এই ধরণের সিদ্ধান্ত নেওয়া ঠিক হয়নি। এদিকে গণমাধ্যমের  প্রধান খবরের পরিণত হয়েছে শাকিব-অপুর বিচ্ছেদ। বিচ্ছেদের মত কঠিন সময়েও শাকিব খান হায়দ্রাবাদে ‘নোলক’  নামক সিনেমার কাজ নিয়ে ব্যস্ত আছেন।

এদিকে আজকে জানা গেল শাকিব ভারতের শিডিউল করা সব শুটিং শেষ করে জানুয়ারিয়াতে উড়াল দিবেন অস্ট্রেলিয়ায় । এই বিষয়ে  শাকিব খানের ভেরিফাইড ফেসবুক ফ্যান পেইজে এক ভক্ত লিখেছেন, ‘‘শাকিব খান আপডেট সর্বশেষ। হায়দ্রাবাদে টানা ১০ম দিনের মত চলছে “নোলক” ছবির শুটিং, সেখানে আরো ১৫ দিন শাকিব খান এই ছবির শুটিং করবেন।

এরপরে হায়দ্রাবাদে শুরু হবে “চিটাগাইংগা পোয়া নোয়াখাইল্লা মাইয়্যা” ছবির শুটিং। তারপর হায়দ্রাবাদেই শুরু হওয়ার কথা রয়েছে শাকিব খান শ্রাবন্তী জুটির ২য় ছবি “বয়ফ্রেন্ড” এর শুটিং। জানুয়ারির শেষ দিকে আশিকুর রহমান এর হার্টবিট এর নাম ঠিক না হওয়া ছবির শুটিং অস্ট্রেলিয়াতে শুরু হওয়ার কথা রয়েছে’’।

তথ্যসূত্র: শাকিব খানের ভেরিফাইড ফেসবুক ফ্যান পেইজ থেকে নেওয়া।

আমাকে বেয়াদব বললে বলুন তাতে আপত্তি নেই: আসিফ

রেহেনা আক্তার রেখা: সংগীতাঙ্গনের এক উজ্জ্বল নক্ষত্র হলেন জনপ্রিয় কন্ঠ শিল্পী আসিফ আকবর। একসময়ে জাদুকরি সুরের মূর্ছনায় তরুণ প্রজন্মের হৃদয়ে ঝড় তুলেছিল এই সংগীত শিল্পী। তবে বর্তমানেও তিনি কম জনপ্রিয় নয়। সম্প্রতি তাঁর একটি গান ইউটুবে আলোড়ন সৃষ্টি করেছে। বলতে বলতে আজ ক্যারিয়ার জীবনে ২০ টি বসন্ত পার করে দিয়েছেন আসিফ।

এদিকে একটু আগে ক্যারিয়ার জীবনের ২০ তম জন্মদিনে তাঁর ভেরিফাইড ফেসবুক পেইজে পোস্ট দিতে গিয়ে লিখেছেন, ‘‘হতে চেয়েছিলাম ক্রিকেটার, হয়ে গেলাম গায়ক, দেখতে দেখতে ক্যারিয়ারের বিশটা বছর পার করে দিলাম। এই বিশ বছরে দেখেছি কিভাবে মাউন্ট এভারেষ্ট লালমাই পাহাড় হয়ে যায় আবার লালমাই পাহাড় কিভাবে মাউন্ট এভারেষ্ট হয়ে যায়।

এটাই সময়ের খেলা- কার পজিশন কখন কোথায় কিভাবে থাকবে সেটা যেমন আল্লাহ নির্ধারন করে দেন, তেমনি নিজের বিচার বিশ্লেষনও বিশেষ ভূমিকা রাখে। নানা কারনে প্রায় আট বছর সঙ্গীতের বাইরে ছিলাম, নিজের অধিকার নিয়ে আবার ফিরেছি। বাংলাদেশের কিছু সৌভাগ্যবান শিল্পীদের মধ্যে আমিও একজন, এখনো প্রতাপ নিয়ে মঞ্চ প্লে-ব্যাক অডিও এবং ওভারসীস ট্যুরে মান- সম্মান বজায় রেখে চলতে পারছি ।

আজকাল পত্রিকা টিভিতে সিনিয়র শিল্পীদের আক্ষেপ শুনে একটু অবাক হই। নতুন প্রজন্মের ছেলে মেয়েরা গান বাজনা করছে , অস্বীকার করবোনা তাদের দুর্বলতা, ধরেই নিলাম তারা খুব খারাপ করছে। একবার ভাবুন- বর্তমানে আপনারা বাংলা গানের শ্রোতাদের কতোটুকু ধরে রাখতে পারছেন। সমালোচনা আর আক্ষেপ ছাড়া আপনাদের ঝুলিতে আছে শুধু অতীত বন্দনা ।

তিন প্রজন্মের বলয়ে আমি ইন্ডাষ্ট্রী দেখেছি। অনিশ্চিত ভবিষ্যৎ সামনে জেনেও বাচ্চারা এখনো কাজ করে ইন্ডাষ্ট্রী ধরে রেখেছে, মান যাই হোক, গানে তাদের নিয়মিত অংশগ্রহণেই ইন্ডাস্ট্রিতে মানি ফ্লো আছে এখনো, এজন্যই আপনাদের কেউ কেউ কথা বলার সূযোগ পাচ্ছেন এবং ফাঁকে ফাঁকে গাইছেন। তাদের গান না শুনেই সস্তা কথা ,সস্তা সুর আর অটো টিউনের গড় পড়তা উদাহরন দিয়ে ভাঙ্গা রেকর্ড বাজিয়েই চলছেন।

জুনিয়রদের আপনারা কতটুকু সহযোগিতা করেছেন একবার ভাবুন, আমিও কিছু সিনিয়রের গুটিবাজী খতম করে এতোদূর এসেছি। পরিস্থিতি সম্বন্ধে ওয়াকিবহাল আছি, আমি জানি তারা কতোটা প্রতিকুলতার মধ্যে কাজ করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে সাহসের সাথে। আগের দিন নাই – সেই বাস্তবতা মানুন। ব্যাগ ভর্তি টাকা নিয়ে প্রডিউসার আসবে- সেদিন রাজহাঁসে খেয়েছে। সেই রাজহাঁস জন্ম দিয়েছে কারা?

স্ক্রিণশর্টটি আসিফের ভেরিফাইড ফেসবুক পেইজ থেকে নেওয়া।

অনিয়মের সাথে আপোষ করে সুবিধা ভোগ করেছেন কারা ? দূঃখজনক হলেও সত্যি- অনিয়ম শেষ পর্যন্ত অনিয়মই। প্রডিউসার টাকশাল নিয়ে বসে নেই, তাদেরও খেয়ে পড়ে চলতে হয়। পত্রিকায় দেয়া বক্তব্যের সাথে আপনাদের বাস্তব চলার পথে মিল নেই, গোপনে যোগাযোগ রাখছেন জানি, কর্পোরেট সুবিধা আপনাদেরই দখলে। মানহীন গান আপনারাও করছেন, টাকাও নিচ্ছেন প্রমান আছে।

আপনারা অনেক সম্মানিত তরুণদের কাছে, অনুগ্রহ করে অহেতুক নতুন জেনারেশনের মুখোমুখি হয়ে তাদের বিব্রতকর অবস্থায় ফেলবেন না। পরিবর্তন এমন একটা বাস্তবতা যেটার ফলাফল খারাপও হতে পারে, ভালোও হতে পারে । মন থেকে ইন্ডাষ্ট্রীকে ভাল রাখুন, ছোটদের সহযোগীতা করুন,তাদের অস্বস্তি দূর করুন। আমার বিবেচনায় যেটা সঠিক কথা, সেটা বলেই যাবো। আমাকে বেয়াদব মনে করলে করুন আপত্তি নেই, এটা নতুন কিছু নয়, অনুগ্রহ করে ডাবল এ্যাকটিং বন্ধ করুন, এতে সম্মানিত হবেন আপনিই । ভালবাসা অবিরা ’’।

 

অপুর পক্ষ নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর সহায়তা চেয়েছেন পরিচালক রনির প্রাক্তন স্ত্রী তমা !

রেহেনা আক্তার রেখা: সম্প্রতি বিনোদন জগতের  শীর্ষ খবর হচ্ছে অপু-শাকিবের বিচ্ছেদ।  শাকিব যখন থেকে অপু বিশ্বাসকে ডিভোর্স লেটার পাঠাই তখন থেকেই গণমাধ্যম একের পর এক খবর প্রকাশ করতে থাকে। সারাদেশে এখন একটাই কথা শাকিব কেন একটি বাচ্চাকে রেখে বিচ্ছেদের মত একটি জঘণ্য কাজের সিদ্ধান্ত নিল।

এই নিয়ে  শাকিব-অপুর সহকর্মীরাও কথা বলছেন। এদিকে সদ্য বিচ্ছেদ হওয়া মেন্টাল ছবির পরিচালক রনির স্ত্রী তমা খান অপু বিশ্বাসের পক্ষ নিয়ে নিজের ফেসবুক পেইজে স্ট্যাটাস দেয়। একটু আগে দেখলাম তিনি অপু বিশ্বাসের পক্ষ নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর সহায়তা চেয়েছেন।

তিনি এই বিষয়ে ফেসবুকে পোস্ট দিতে গিয়ে লিখেছেন, ‘‘মোহরানার টাকা আর চরিত্র নিয়ে কথা বলায় আজকে আমার গা জ্বলে যাচ্ছে। এই সমস্ত ভণ্ডামি মেনে নেয়া যায় না! আমিও প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করছি। মাননীয়া, আমাদের মিল করিয়ে দিবেন ওটা কোনোদিনও আর হবে না। কারুর পক্ষ থেকেই না! (ভাগ্যিস আমার কোনো সন্তান নেই।

আমি কেবল আমার প্রাপ্য সম্মানটুকু চাই আর মিথ্যা শুনে শুনে আমার মনোবল হারাতে চাই না। আর বিচার করতে চাইলে সেটা তো আপনার মানবিকতা। হেল্প মি ডিয়ার প্রাইম মিনিস্টার আপা’’।স্ক্রিণশর্ট তমা খানের ফেসবুক পেইজ থেকে নেওয়া।

আর মাত্র ৪ দিন পর শুরু হবে পরীমণির ‘অন্তর জ্বালা’

রেহেনা আক্তার রেখা: আর মাত্র ৪ দিন পর জনপ্রিয় অভিনেত্রীর অন্তরে শুরু হবে জ্বালা। তবে এই জ্বালা বাস্তবে নয় পর্দায় দেখবেন পরীমণির অন্তর পুড়ে মরে ছাই হয়ে গেছে। এমনই হৃদয়বিদারক দৃশ্য নিয়ে তৈরি হয়েছে ‘অন্তর জ্বালা’ ছবিটি।

এদিকে এই সিনেমাটি আগামী ১৫ ডিস্বের সারাদেশে ১৭৫টি হলে মুক্তি পাওয়ার কথা রয়েছে। পরীমণি ও জায়েদ খান অভিনীত এই ছবিটি মুক্তির আগেই ইতোমধ্যে ইউটুবে ঝড় তুলেছে। এই ছবিটি পরিচালনা করে আবারও প্রশংসা কুড়িয়েছেন পরিচালক মালেক আফসারী।

ছবিটি পরিবেশনা করছে নায়ক মান্নার প্রযোজনা সংস্থা কৃতাঞ্জলি কথাচিত্র। যাইহোক আজকে জুমবাংলার পাঠকদের জন্য রয়েছে পরীমণির ‘অন্তর জ্বালা’ নিয়ে ছোট্ট একটি আয়োজন। আসুন ছবিতে এক নজরে দেখে নেই। ‘অন্তর জ্বালা’ সিনেমায় জায়েদ আর পরীমণির একটি দৃশ্য। 

অন্তর জ্বালা’ সিনেমায় পরীমণির হৃদয়বিদারক দৃশ্য।

 

‘অন্তর জ্বালা’ সিনেমার রোমান্টিক একটি দৃশ্য।

‘অন্তর জ্বালা’ সিনেমার এই দৃশ্য দেখলে আপনি কান্না করতে বাধ্য হবেন।

অন্তর জ্বালার আবেগঘণ একটি দৃশ্য।

পর্দায় পরীমণি ও জয়েদের রোমান্স।

ছবি:পরীমণির ভেরিফাইড ফেসবুক পেইজ থেকে সংগৃহীত।